ওয়ানডে’র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার

ওয়ানডে'র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার
ওয়ানডে'র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার

দেশের অন্যতম সেরা বোলিং ফিগার তাঁর দখলে। এবার ২২ গজকে বিদায় জানালেন ভারতীয় অলরাউন্ডার স্টুয়ার্ট বিনি। চলতি ভারত বনাম ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজের মাঝেই আন্তর্জাতিক সহ সব ধরনের ক্রিকেট থেকেই অবসর ঘোষণা করলেন তিনি। সোমবার একটি বিবৃতি জারি করে নিজের এই সিদ্ধান্তের কথা জানা স্টুয়ার্ট। বিনির আগামী জীবনের জন্য তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট মহল।

ওয়ানডে'র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার
ওয়ানডে’র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার

সোমবার নিজের বিবৃতিতে স্টুয়ার্ট বিনি জানান, ‘সকলকে জানাই, আমি প্রথম শ্রেণী ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করছি। দেশের হয়ে সর্বোচ্চ স্তরে প্রতিনিধিত্ব করা আমার কাছে সবসময় গর্বের এবং আনন্দের হয়ে থাকবে।’ পাশাপাশি তাঁর পাশে থাকার জন্য এবং তাঁর উত্থান-পতনে সঙ্গ দেওয়ার জন্য ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ও মিডিয়াকেও ধন্যবাদ জানান ৩৭ বছরের এই ভারতীয় ক্রিকেটার।

উল্লেখ্য, ব্যাট হাতে তেমন সাফল্য না পেলেও, আন্তর্জাতির একদিনের ক্রিকেটে দেশের অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক স্টুয়ার্ট বিনি। ২০১৪ সালের জুনে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঢাকায় ৪.৪ ওভার বল করে ৪ রান দিয়ে ৬ উইকেট তুলে নেন বিনি। তা এখনও রেকর্ড। এছাড়াও ভারতের হয়ে ৬টি টেস্টে ১৯৪ রান ও ৩ উইকেট রয়েছে তাঁর দখলে। ১৪টি একদিনের ম্যাচ খেলে রান করেছেন ২৩০, উইকেট ২০টি, ৩টি টি২০ ম্যাচে রান এসেছে ৩৫ সঙ্গে ১টি উইকেট। পাশাপাশি আইপিএলে মোট ৯৫টি ম্যাচ খেলে ৮৮০ রান এবং ২২টি উইকেট বিনির দখলে। খেলেছেন ৯৫টি প্ৰথম শ্রেণীর ম্যাচও।

ওয়ানডে'র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার
ওয়ানডে’র অন্যতম সেরা বোলিং ফিগারের মালিক! ক্রিকেটের ময়দানকে বিদায় জানালেন এই অলরাউন্ডার

ঘটনাচক্রে, ‘৮৩ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য কিংবদন্তি রজার বিনির ছেলে স্টুয়ার্ট। তবে ভালো শুরু করেও বাবার মতো সাফল্য এসে ধরা দেয়নি তাঁর হাতে। দীর্ঘ ৫ বছর জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন তিনি। খেলেননি একটিও আন্তর্জাতিক ম্যাচ। আইপিএলে মুম্বই ইন্ডিয়ানস, রাজস্থান রয়্যালসের মতো দলের হয়ে খেললেও আহামরি কিছু করে দেখাতে পারেননি একসময়ের এই তারকা ক্রিকেটার। তাই সব ভেবে চিন্তেই ক্রিকেটের ময়দান থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নিলেন স্টুয়ার্ট।