‘বাড়িতেই কীভাবে অক্সিজেন তৈরি করা সম্ভব’? উত্তরের খোঁজে গুগলের দারস্থ দেশবাসী

'বাড়িতেই কীভাবে অক্সিজেন তৈরি করা সম্ভব'? উত্তরের খোঁজে গুগলের দারস্থ দেশবাসী
'বাড়িতেই কীভাবে অক্সিজেন তৈরি করা সম্ভব'? উত্তরের খোঁজে গুগলের দারস্থ দেশবাসী

দেশে দিনের পর দিন চড়ছে করোনার গ্রাফ। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের হারও। এরই মধ্যে সারা দেশে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। অক্সিজেন নিয়ে দেশ জুড়ে এখন শুধুই হাহাকার। চাহিদা অনুযায়ী অক্সিজেনের যোগান নেই। তাই ইতিমধ্যেই তীব্র অক্সিজেন সংকটের মধ্যে পড়েছে একের পর এক রাজ্য। তাই দেশে অক্সিজেনের অভাব মেটাতে এবার গুগলের দারস্থ হল আমজনতা। কীভাবে বাড়িতেই অক্সিজেন বানানো যায় সেই প্রশ্নই এখন ট্রেন্ডিং গুগল জুড়ে!

গুগলে সার্চে এখন ট্রেন্ডিং ‘হাও টু মেক অক্সিজেন অ্যাট হোম।’ শুক্রবার সকাল থেকেই গুগলে অক্সিজেন সংক্রান্ত নানা তথ্য খোঁজার চেষ্টায় রত আমজনতা৷ বাড়িতে কীভাবে অক্সিজেন বানানো সম্ভব সেই প্রশ্ন সবচেয়ে বেশি। ফলে বাড়ছে এর সার্চ ভ্যালুও৷ গত ১৫ এপ্রিল নাগাদ যার সার্চ ভ্যালু ছিল ১০-১৩, শুক্রবার তাই দাঁড়ায় ১০০ তে৷ এর মধ্যে গুজরাটের সার্চ ভ্যালু সবচেয়ে বেশি। সেখানের সার্চ ভ্যালু ৭০। এরপরই যথাক্রমে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ ৫৫, মহারাষ্ট্র ৪৯ এবং মধ্যপ্রদেশ ৪৬।

এবার প্রশ্ন উঠতেই পারে, কী এই সার্চ ভ্যালু? আসলে গুগলে নির্দিষ্ট সময় কোনও বিষয় সম্পর্কে কত বেশি সংখ্যক মানুষ সার্চ করছেন, তার ওপর একটা মূল্য নির্ধারিত হয়। তাকেই বলা হয় ‘সার্চ ভ্যালু’। আর ইদানীং অক্সিজেন সংক্রান্ত প্রশ্নের সার্চ ভ্যালু বেশ ঊর্ধ্বমুখী৷ গুগলও অবশ্য ফেরাচ্ছে না কাউকে। সেখানে সার্চ করে এমন অনেক সাইটের দেখা মিলছে যেখানে অক্সিজেন তৈরির পদ্ধতি বলা রয়েছে। এছাড়াও অক্সিজেন সংক্রান্ত আরও নানা প্রশ্নের উত্তরও মিলছে। তবে সেগুলি কতটা কার্যকর তা এখনও জানা যায়নি।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.