দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর

দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর / Image Source: Instagram @iplt20
দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর / Image Source: Instagram @iplt20

গত ম্যাচে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে একটুর জন্য হাতছাড়া হয়েছিল জয়৷ প্লে অফের লড়াইয়ে টিকে থাকতে হলে আজ দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে জিততেই হত কলকাতাকে। সেটাই করে দেখাল কলকাতা নাইট রাইডার্স। বোলিং এবং ব্যাটিংয়ে দুরন্ত পারফরম্যান্সের জেরে দিল্লিকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্লে অফের আশা জিইয়ে রাখল কলকাতা। আপাতত ১১ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের ৪ নম্বর স্থানেই রইল শাহরুখের দল।

এদিন দুবাইয়ের শারজা স্টেডিয়ামে টসে জিতে দিল্লিকে ব্যাট করে পাঠিয়েছিলেন কেকেআর ক্যাপ্টেন অইন মর্গ্যান। দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও স্টিভ স্মিথ শুরুটা ভাল করলেও রানের গতি বাড়ছিল না। দিল্লিকে প্রথম ঝটকা দেন লকি ফার্গুসন। ধাওয়ানকে প্যাভিলিয়নে ফেরান তিনি। এরপর সুনীল নারাইনের বলে বোল্ড হন শ্রেয়স আইয়ার। পর পরই সাজঘরে ফিরে যান স্মিথও। এরপর একে একে ব্যর্থ হন শিমরন হেটমায়ার, ললিত যাদব, অক্ষর পটেল, রবিচন্দ্রন অশ্বিন। দিল্লির ক্যাপ্টেন ঋশভ পন্থ কিছুটা চেষ্টা করলেও তিনি আউট হন ৩৯ রানে।

অবশেষে ৯ উইকেট হারিয়ে এদিন ১২৭ রানে শেষ হয় দিল্লির ইনিংস। কলকাতার হয়ে এদিন দু’ওভার বল করে ১০ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন ফার্গুসন। চার ওভারে মাত্র ১৮ রান দিয়ে ২ উইকেট পান সুনীল নারাইন। এদিন তরুণ নাইট ভেঙ্কটেশ আইয়ারও ৪ ওভার বল করে মাত্র ২৯ রান দিয়ে দু’টি উইকেট তুলে নেন। কলকাতা টিমে অভিষেক করা টিম সাউদি পান একটি উইকেট। তবে উইকেট পাননি বরুণ চক্রবর্তী। যদিও বেশ আঁটোসাটো বোলিং করে তিনি।

দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর / Image Source: Instagram @kkriders
দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর / Image Source: Instagram @kkriders

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে শুরু করেন কলকাতার দুই ওপেনার শুভমান গিল ও ভেঙ্কটেশ আইয়ার। তবে দিল্লির ললিত যাদব ভেঙ্কটেশকে বোল্ড করেন প্যাভিলিয়নে ফেরান। এরপর দ্রুত আউট হন রাহুল ত্রিপাঠিও। এদিকে বড় শট মারতে গিয়ে রাবাডার বলে আউট হন গিলও। এরপর ব্যাট করতে এসেই আউট হন ক্যাপ্টেন মর্গ্যান। কেকেআরের ইনিংসের হাল এরপর ধরেন নীতিশ রানা। কার্তিকের সঙ্গে ছোট্ট জুটি গড়ে ম্যাচ এগিয়ে নিয়ে যান। কার্তিক আউট হলে মাঠে নামেন নারাইন। আর তারপরই খেলার গতি বদলায়। মাত্র ১০ বলে ২১ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে দলকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন নারাইন। তিনি আউট হলে জয়সূচক রান করে কলকাতাকে জিতিয়েই ফেরেন নীতিশ রানা। ২৭ বলে তিনি করেন অপরাজিত ৩৬ রান। এই ম্যাচ জিততে তাঁর ভূমিকাও কম গুরুত্বপূর্ণ নয়।

দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর / Image Source: Instagram @kkriders
দুর্দান্ত ব্যাটিং, অলরাউন্ড পারফরম্যান্স! এই দুই তারকার যুগলবন্দীতেই দিল্লিকে হারাল কেকেআর / Image Source: Instagram @kkriders

তবে এদিন ব্যাটে এবং বলে, দুইয়েই দারুণ অলরাউন্ড পারফরম্যান্স দেখান সুনীল নারাইন। তিনি এসেই আক্ষরিক অর্থে ম্যাচের রঙ বদলান। স্বাভাবিকভাবেই তাই ম্যাচের সেরাও হন তিনি। অন্যদিকে, দিল্লির হয়ে বল হাতে আবেশ খান ৩ উইকেট নেন। এছাড়া নর্টিয়া, অশ্বিন, ললিত যাদব, রাবাডা প্রত্যেকে একটি করে উইকেট নেন। এই ম্যাচ হেরে দিল্লি এখন পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বর স্থানেই থেকে গেল।