পিচের বাইরে বল, তবু ডাকা হল না নো-বল! IPL-এ ফের আম্পায়ারিং বিতর্ক, রইল ভিডিও

পিচের বাইরে বল, তবু ডাকা হল না নো-বল! IPL-এ ফের আম্পায়ারিং বিতর্ক, রইল ভিডিও

চলতি আইপিএলে বারবার বিতর্কে জড়িয়ে পড়ছেন আম্পায়াররা। একাধিক ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার অভিযোগে আম্পায়ারদের কাঠগড়ায় তুলছে ক্রিকেটমহল৷ চলছে সমালোচনাও। সম্প্রতি কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম পাঞ্জাব কিংস ম্যাচই হোক বা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর বনাম পাঞ্জাব কিংস ম্যাচ, ডিআরএস-এর সিদ্ধান্ত ভুল নিয়ে বেশ শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হল এবার দিল্লি ক্যাপিটালস বনাম চেন্নাই সুপার কিংস ম্যাচেও। এদিনও আম্পায়ারের বিতর্কিত এক সিদ্ধান্তকে ভুল অভিযোগ তুলে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটার।

সোমবার দুবাইয়ের স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিল দিল্লি ও চেন্নাই। চেন্নাইয়ের ১৩৬ রান তাড়া করতে নেমেছিল দিল্লি। শেষ ওভারে পন্থের দলের জেতার জন্য প্রয়োজন ছিল ৬ রান। সেসময় ধোনি বল তুলে দেন ডোয়েন ব্র্যাভোর হাতে। এদিকে ক্রিজে তখন শিমরন হেটমায়ার। তিনি যাতে বল সহজে মারতে না পারেন, তাই অফ স্টাম্পের বাইরে ফুল লেংথে বল রাখার পরিকল্পনা করেন ব্র‍্যাভো। কিন্তু ওভারের দ্বিতীয় বলে ব্র্যাভো এতটাই বাইরে বল করেন যে তা ক্রিকেট পিচের বাইরে গিয়ে পড়ে। ব্র্যাভোর বল অফ-স্টাম্পের অনেকটা বাইরে চলে যাওয়ায় অন-ফিল্ড আম্পায়ার ওয়াইডের সিদ্ধান্ত দেন।

ক্রিকেটীয় নিয়ম অনুযায়ী বোলারের বল সোজা পিচের বাইরে পড়লে (সম্পূর্ণ বা আংশিক) তা নো বলই হিসেবেই গণ্য হয়। সেইমতো লেগ আম্পায়ার এবং প্রধান আম্পায়ার দুইজনেই প্রথমে বলটিকে নো বল হিসাবেই ঘোষণা করেন। কিন্তু কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে তৃতীয় আম্পায়ারের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত বদল করে ওয়াইড দেন তাঁরা। এরপরই বিতর্কের শুরু।

আম্পায়ারদের এই সিদ্ধান্তে দিল্লি শিবিরের সকলেই বেশ অবাক হয়ে যান। মাঠের সাইডলাইনে বসে থাকা দিল্লি কোচ রিকি পন্টিংকে এক আম্পায়ারের সঙ্গ উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় করতেও দেখা যায়। অন্যদিকে, সম্প্রচারকারী চ্যানেলে প্রাক্তন ক্রিকেট কিংবদন্তি গাভাসকারও বলেন, “ওটা পরিস্কার নো-বল ছিল। টিভি আম্পায়ারদের কয়েকটা সিদ্ধান্ত আমরা দেখেছি। যা জয়-হারের ফারাক গড়ে দেয়। এটা হওয়া উচিত নয়।” শেষ পর্যন্ত অবশ্য চেন্নাইকে ৩ উইকেটে হারিয়ে দেয় দিল্লি। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেও উঠে আসে।