নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রীর আহত হওয়ার ঘটনায়, অপসারিত নিরাপত্তা অধিকর্তা বিবেক সহায়

নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রীর আহত হওয়ার ঘটনায়, অপসারিত নিরাপত্তা অধিকর্তা বিবেক সহায়
নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রীর আহত হওয়ার ঘটনায়, অপসারিত নিরাপত্তা অধিকর্তা বিবেক সহায়

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ নন্দীগ্রামে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহত হওয়ার ঘটনায় কড়া পদক্ষেপ নিল নির্বাচন কমিশন। অপসারিত হলেন রাজ্যের নিরাপত্তা অধিকর্তা বিবেক সহায়। শুধু তিনিই নন। ওই একই ঘটনার জেরে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সরানোর নির্দেশ দেওয়া হল পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক বিভু গোয়েল ও পুলিশ সুপারকেও।

পাশপাশি সূত্রের খবর, ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে স্থানীয় দুই থানার ওসি এবং এডিএমের বিরুদ্ধেও। জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক বিভু গোয়েলের বদল দায়িত্ব পাচ্ছেন স্মৃতি পান্ডে। আর পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার প্রবীণ প্রকাশকে সরিয়ে দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে সুনীল কুমার যাদব কে।

উল্লেখ্য, নন্দীগ্রামে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর আহত হওয়ার ঘটনায় মুখ্য সচিব এবং সচিবের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতেই এদিন কমিশনের বৈঠক বসে। সেই বৈঠকেই নন্দীগ্রামের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাওয়া বিশেষ দুই পর্যবেক্ষককে নিজেদের মতামত জানাতেও বলা হয়।

এরপর বৈঠকেই রাজ্যে নিরাপত্তা অধিকর্তা বিবেক সহায়কে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কমিশন সূত্রে খবর, কাজে গাফিলতির কারণেই তাঁকে অপসারণ করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। সূত্রের খবর, শুধুমাত্র নিরাপত্তা অধিকর্তা হয়, মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা নিচু স্তরের যে যে অফিসার রয়েছেন, তাঁদের কারণও কোনও গাফিলতি ছিল কিনা, থাকলে তাঁদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে, তা জানিয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি নীরজনয়ন পাণ্ডেকে। ১৭ মার্চ, বুধবার বিকেল ৫টার মধ্যে সেই রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.