‘উন্নতি, আরও উন্নতি হবে বাংলায়, যদি মমতা মুখ্যমন্ত্রী হন’: জয়া বচ্চন

'উন্নতি, আরও উন্নতি হবে বাংলায়, যদি মমতা মুখ্যমন্ত্রী হন': জয়া বচ্চন
'উন্নতি, আরও উন্নতি হবে বাংলায়, যদি মমতা মুখ্যমন্ত্রী হন': জয়া বচ্চন / ছবি সৌজন্যে- Screengrab from Facebook Video Posted By @AITCofficial

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ একুশের বিধানসভা নির্বাচনে গতকালই মমতার সমর্থনে আর এক ‘বাংলার মেয়ে’ রাজ্যসভার সাংসদ জয়া বচ্চন নির্বাচনী প্রচারে এসেছেন।

‘বাংলার নিজের মেয়ে’। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে এটাই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের ক্যাচলাইন। ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’ এই স্লোগানকে তুলে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সামনে রেখে, একুশের মহা ভোটসমরে জয় ছিনিয়ে নিতে চাইছে তৃণমূল। সেই লক্ষ্যে বাংলার আর এক মেয়েকেই প্রচারে রাজ্যে নিয়ে এসেছে তৃণমূল। তিনি আর কেউ নন, অমিতাভজায়া জয়া বচ্চন।

আজ থেকেই ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে, প্রচারে নামবেন বাংলার ‘ধন্যি মেয়ে’ জয়া বচ্চন। আজ তৃণমূল ভবনে কথামত সাংবাদিক সম্মেলন করেন অভিনেত্রী তথা রাজ্যসভার সাংসদ জয়া বচ্চন। এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিতি ছিলেন জয়ার পাশাপাশি তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ দোলা সেন এবং মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসু। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে টানা তিনদিন নির্বাচনী প্রচার চালাবেন জয়া।

এদিন সাংবাদিক সম্মেলনের শুরুতেই তিনি মনে করিয়ে দিলেন যে, তিনি ‘বাংলার মেয়ে’। বললেন, ‘আমার নাম নয়া বচ্চন। তার আগে আমার নাম ছিল জয়া ভাদুড়ি। আমার বাবার নাম তরুণ ভাদুড়ি। আমরা প্রবাসী বাঙালি। কিন্তু বাঙালি।’

অনেক আগেই বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসকে সমর্থন জানিয়েছেন সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব। উল্লেখ্য, মুলায়ম-অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘদিনের সুসম্পর্ক। সুসম্পর্ক জয়া বচ্চনের সঙ্গেও। আবার এই সমাজবাদী পার্টিরই রাজ্যসভার সাংসদ জয়া। অখিলেশের নির্দেশেই মমতার হয়ে নির্বাচনী প্রচারে এ রাজ্যে এসেছেন বলে জানিয়ে দিলেন অমিতাভজায়া।

মমতা এবং জয়া দু’জনে একসঙ্গে দীর্ঘ সময় সংসদ ভবনের অলিন্দে পা মিলিয়েছেন। মমতা বন্দোপাধ্যায় যখনই ডেকেছেন বাংলার ‘ধন্যি মেয়ে’কে, তখনই সাড়া দিয়েছেন অমিতাভজায়া। শুধু কি তাই, করোনাকালের আগে প্রত্যেক বছর ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের মঞ্চে হাজির থাকতেন অমিতাভ-জয়া দুজনেই৷ ফলে এতদিনের সেই পুরানো সম্পর্কের জন্যই আরও একবার এই রাজ্যে মমতার হয়ে পথে নামছেন জয়া বচ্চন।

আজ সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে তাঁর স্পষ্ট কথা, ‘এখানে অভিনয় করতে আসিনি। অখিলেশ যাদব আমাকে বললেন, আমরা সমর্থন করছি তৃণমূল কংগ্রেসকে। তাঁদের প্রচারে যাবেন আপনি। আমার খুব ভালো লাগল, উনি আমাকে এই দায়িত্ব দিয়েছেন। দ্বিতীয়ত, মমতাজির জন্য ভালোবাসা ও সম্মান।’

বাংলায় বিজেপির বিরুদ্ধে মমতার অদম্য লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়ে জয়া বচ্চন বলেন যে, ‘সমস্ত প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন একজন মহিলা। মাথা ভাঙা, পা ভাঙা কিন্তু ওরা মমতার হৃদয় ও মস্তিস্ককে ভাঙতে পারেনি। বাংলাকে বিশ্বের দরবারে সেরা করাই মমতার জেদ ও লক্ষ্য। উন্নতি হবে, আরও উন্নতি হবে, যদি বাংলায় মমতা মুখ্যমন্ত্রী হন।’

তিনি আরও বলেন যে, ‘আমার ধর্ম এবং গণতান্ত্রিক অধিকারকে কেড়ে নেবেন না। এখানে আমি মানে আমরা সবাই। আপনাদের গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষার লড়াই করছেন মমতা।’ সাংবাদিক সম্মেলনে ‘বাংলার মেয়ে’ জয়া বচ্চন কবিগুরুর ‘বাংলার মাটি, বাংলার জল’ থেকে উদ্ধৃত করে দিলেন ঐক্যের বার্তা, ‘বাঙালির প্রাণ, বাঙালির মন, বাঙালির ঘরে যত ভাই বোন, এক হউক, এক হউক, এক হউক হে ভগবান।’

তিনি আরও বললেন, বাংলা আজ যা ভাবে, অন্যান্যরা তা অনেক পরে ভাবে। আর কটাক্ষের সুরে সবশেষে তাঁর উক্তি, ‘মমতাদিকে যাঁরা পছন্দ করেন না, আজেবাজে বলেন, তাঁদের বলব লজ্জা, লজ্জা।’

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.