সঠিক সময়ে জম্মু-কাশ্মীরকে দেওয়া হবে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা, সংসদে দাঁড়িয়ে বললেন অমিত শাহ

সঠিক সময়ে জম্মু-কাশ্মীরকে দেওয়া হবে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা, সংসদে দাঁড়িয়ে বললেন অমিত শাহ
সঠিক সময়ে জম্মু-কাশ্মীরকে দেওয়া হবে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা, সংসদে দাঁড়িয়ে বললেন অমিত শাহ / ছবি সৌজন্যে- Screengrab From Facebook Video Posted By @Amitshahofficial

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ সঠিক সময়ে ফিরিয়ে দেওয়া হবে জম্মু এবং কাশ্মীরকে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা। লোকসভায় দাঁড়িয়ে সেকথাই বললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তবে, এখনই সেই সময় আসেনি। সময় হলেই, সরকার এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলেই জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিরোধীদের উদ্দেশ্যে অনুরোধ জানিয়েছেন যে, ভুল বিবৃতি দিয়ে, কাশ্মীরের মানুষকে যেন বিভ্রান্ত বা ভুল বোঝানো না হয়। উল্লেখ্য, ৭০ বছরে কী করেছে কংগ্রেস? শনিবার লোকসভায় দাঁড়িয়ে এভাবেই বিরোধীদের আক্রমণ করেন অমিত শাহ। জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে বিরোধীদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাংলার তৃণমূল সরকার থেকে কংগ্রেসকে একযোগে আক্রমণ করেন।

জম্মু ও কাশ্মীর পুনর্গঠন সংশোধনী বিল ২০২১-এর উপরে আলোচনা চলাকালীন এদিন এই কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি সংসদে দাঁড়িয়ে বলেন, অনেক সাংসদই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন যে, এই বিল পাশ হওয়া মানেই, জম্মু ও কাশ্মীর আর রাজ্যের তকমা ফিরে পাবে না। তিনি এও পরিষ্কার করে বলেন যে, এই বিলে তেমন কিছুই লেখা নেই। তাঁর প্রশ্ন, তাহলে বিরোধীরা কীভাবে এই দাবি করছেন? তিনি বলেন যে, কেন্দ্রশাসিত এই অঞ্চলকে যথাসময়ে রাজ্যের স্বীকৃতি ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

এদিন লোকসভায় জম্মু ও কাশ্মীর পুর্নগঠন বিল (The Jammu and Kashmir Reorganisation Amendment Bill) পাশের আগে আলোচনা চলাকালীন, লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র উদ্দেশ্যে প্রশ্ন করেন, ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করার সময় অনেক বড় বড় প্রতিশ্রুতি শোনা গিয়েছিল। তার কী হল? উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের অগাস্ট মাসে জম্মু কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পাশাপাশি জম্মু কাশ্মীর এবং লাদাখকে দু’টি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করে নরেন্দ্র মোদি সরকার৷

অন্যদিকে এদিন জম্মু ও কাশ্মীরের উন্নয়ন নিয়ে, বিরোধীদেরও আক্রমণ করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন যে, ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর থেকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার কাশ্মীরের উন্নয়নে কী করেছে? কিন্তু কাশ্মীরের বিশেষ ক্ষমতা প্রত্যাহারের পর মাত্র ১৭ মাস হয়েছে। এখন বিরোধীরা উন্নয়নের হিসেব চাইছেন। অথচ গত ৭০ বছর ধরে যারা ক্ষমতায় ছিলেন, তাঁরা শাসনের সুযোগ নিয়ে কী করেছেন? বিরোধীরা যদি নিজের কাজ ঠিকভাবে ঠিক সময়ে করত, তাহলে আজ তাঁদের এই প্রশ্ন করতে হত না।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.