এইচআরবিসির চেয়ারম্যান হলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

এইচআরবিসির চেয়ারম্যান হলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়
এইচআরবিসির চেয়ারম্যান হলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশন অর্থাৎ এইচআরবিসি নতুন চেয়ারম্যান পদে স্থলাভিষিক্ত হলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এতদিন এই পদে ছিলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে তার বদলে কল্যাণবাবুকে চেয়ারম্যান করার কথা ঘোষণা করা হয়।

বেশ কিছুদিন ধরেই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা চলছে রাজনৈতিক মহলে। রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। দলের সঙ্গে তার যে ঠান্ডা লড়াই চলছে তা নিয়ে আপাতত মুখরিত রাজনৈতিক মহল। এই পরিস্থিতিতে দলের হেভিওয়েট সাংসদদের সঙ্গে বারবার বৈঠকে বসে তেমন কোন অসুবিধে হয়নি। শুভেন্দুবাবুর সাফ জানিয়েছেন পদের লোভ তার নেই। তবে সম্মান ও গুরুত্ব চান তিনি দলের অন্দরে। পাশাপাশি দলনেত্রী সঙ্গে সরাসরি এ বিষয়ে আলোচনা করতে চেয়েছেন তিনি।

এদিকে নন্দীগ্রামের সভার পর শুভেন্দু অধিকারীকে কড়া ভাষায় কটাক্ষ করেছিলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পরেই শুভেন্দুর জায়গায় কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এর পদোন্নতি যথেষ্ট ইঙ্গিতপূর্ণ। এই রদবদলের পর স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে শুভেন্দু অধিকারী নিজেই ইস্তফা দিয়েছেন নাকি তার পদস্খলন ঘটানো হয়েছে। প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী সরাসরি কিছু না জানালেও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমাকে এইচআরবিসি চেয়ারম্যান করা হয়েছে। তবে আমি শুনেছি শুভেন্দু ওই পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।”

তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে বিধানসভা নির্বাচনের আগে এইভাবে পরিবহন মন্ত্রীর দায়িত্ব কমানো যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.