সুযোগ এলেও সম্ভব হয়নি হোমি আদজানিয়া’র চলচ্চিত্রে সুশান্ত ও কঙ্গনার একসঙ্গে অভিনয়

সুযোগ এলেও সম্ভব হয়নি হোমি আদজানিয়া’র চলচ্চিত্রে সুশান্ত ও কঙ্গনার একসঙ্গে অভিনয়
সুযোগ এলেও সম্ভব হয়নি হোমি আদজানিয়া’র চলচ্চিত্রে সুশান্ত ও কঙ্গনার একসঙ্গে অভিনয়

বংনিউজ২৪x৭ বিনোদন ডেস্কঃ আজ মুক্তি পাচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনীত শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’। আজ রাত ৭.৩০ টায় ডিজনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পাবে মুকেশ ছাবড়া পরিচালিত এবং সুশান্ত সিং রাজপুত, সঞ্জনা সাংঘি, স্বস্তিকা অভিনীত ‘দিল বেচারা’। এই চলচ্চিত্রকে ঘিরে ইতিমধ্যেই দর্শক, সুশান্তের অগণিত ভক্ত, সহকর্মী এবং বন্ধুদের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে। ‘দিল বেচারা’র ট্রেলার মুক্তির সঙ্গে সঙ্গে তা ইউটিউবে সাম্প্রতিকের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

সুশান্তের মৃত্যুর পর একাধিক বিতর্কের জন্ম হয়েছে। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম ব্যক্তিত্ব, যিনি সুশান্তের মৃত্যুর পর অভিযোগ করেন যে, সুশান্তকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে বাধ্য করা হয়েছে। তিনি এও দাবী করেছেন যে, বারবার মুম্বই পুলিশের কাছে কঙ্গনা তাঁর বয়ান নেওয়ার অনুরোধ করলেও, সেই অনুরোধ রাখা হয়নি। সুশান্তের মৃত্যুতে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত বলিউডের স্বজনপোষণকে দায়ী করেন। এর পাশাপাশি প্রযোজক করণ জোহর এবং আদিত্য চোপড়ার বিরুদ্ধেও অভিযোগ আনেন। যতক্ষণ না পর্যন্ত সুশান্ত সিং রাজপুত ন্যায় বিচার পাচ্ছেন, ততদিন কঙ্গনা নিজের লড়াই চালিয়ে যাবেনও বলেছেন। পাশাপাশি সুশান্তের মৃত্যু যে নিছক আত্মহত্যা নয়, তারও প্রমাণ নাকি তাঁর কাছে রয়েছে বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী। অথচ কঙ্গনা এবং সুশান্ত কখন একসঙ্গে কাজ করেননি কোন চলচ্চিত্রে।

একসঙ্গে অভিনয় শেষ পর্যন্ত করা না হলেও, সেই সুযোগ কিন্তু এসেছিল। হ্যাঁ ঠিকই শুনছেন। চলচ্চিত্র নির্মাতা হোমি আদজানিয়া কঙ্গনা ও সুশান্তকে তাঁর একটি চলচ্চিত্রে নিতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। এমনটাই জানিয়েছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। যদিও শেষপর্যন্ত তা বাস্তবে রূপায়িত হয়নি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে এমনই তথ্য দিয়েছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। তিনি এই প্রসঙ্গে বলেছেন যে, সেই দিনটি তিনি কখনও ভুলবেন না, যখন হোমি তাঁকে ফোন করে তাঁর অফিসে ডেকে পাঠায়, একটি চলচ্চিত্রের গল্প শোনার জন্য। সেখানে যাওয়ার আগেই কঙ্গনার হাতে এসে পৌঁছায় অভিনেতা ঋত্বিক রোশনের পাঠানো আইনি চিঠি। এই চিঠি পাওয়ার পর মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন অভিনেত্রী, যে কারণে হোমি আদজানিয়ার অফিসে গিয়ে চলচ্চিত্রের কাহিনি শুনলেও, তাতে ঠিকমতো মনোনিবেশ করতে পারেননি সেই সময়, এমনটাই জানিয়েছেন অভিনেত্রী। তিনি হোমি আদজানিয়াকে যে কারণে বলেছিলেন তিনি, আবারও একবার কাহিনি ভালো করে শুনতে চান। তিনি আসবেন আবার তাঁর কাছে।

অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন যে, এরপর একবছর তিনি যে ধরনের কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছিলেন, তাতে তিনি কোনও নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হননি। কিন্তু তিনি হোমি আদজানিয়ার সেই চলচ্চিত্রের কথা ভুলতে পারেননি। তিনি জানিয়েছেন যে, আজও তাঁর স্পষ্ট মনে আছে যে, চলচ্চিত্রটি ছিল এক শহুরে দম্পতির প্রেমের কাহিনি নির্ভর।

অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত আরও জানিয়েছেন যে, ‘যখন এই পুরো ঘটনা ঘটল, তখন আমার মনে হচ্ছিল, যদি তখন ঐ চলচ্চিত্রে আমি অভিনয় করতাম, তাহলে আজ কি আমাদের জীবন অন্যরকম হতো? আমি জানি না। আমি সত্যি জানি না। এটা আমার কাছে দুর্ভাগ্যজনক। আমি হয়তো একজন ভালো বন্ধু পেতাম। আমি তাঁকে বোঝাতে পারতা্‌ম, জীবনে সবক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্যতা না পেলে কীভাবে তা সামলাতে হয়। এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। এতোটাই যে, আমার খুবই খারাপ লাগছে। আমি চলচ্চিত্রটি করলে আজ আমাদের জীবন কিরকম হতো কিনা জানি না, আমি শুধুই চিন্তা করতে পারি সে সম্পর্কে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ১৪ জুন মুম্বইয়ে বান্দ্রার নিজের ফ্ল্যাটে আত্মহত্যা করেন প্রতিভাবান অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.