তাঁর হাত ধরেই এসেছিল দেশের প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ! জন্মদিনে জেনে নেওয়া যাক কপিল পাজির জীবনের কিছু অজানা তথ্য…

তাঁর হাত ধরেই এসেছিল দেশের প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ! জন্মদিনে জেনে নেওয়া যাক কপিল পাজির জীবনের কিছু অজানা তথ্য...
তাঁর হাত ধরেই এসেছিল দেশের প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ! জন্মদিনে জেনে নেওয়া যাক কপিল পাজির জীবনের কিছু অজানা তথ্য...

তাঁর হাত ধরেই আমাদের দেশ, ভারত, জিতেছিল প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ! ফাইনালে অসাধারণ অধিনায়কত্বে হারিয়েছিলেন তৎকালীন বিশ্বজয়ী দল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে! এ কথা তো প্রায় প্রত্যেকেরই জানা। গোটা টুর্নামেন্টে ব্যাট হাতে ৩০৩ রানের পাশাপাশি নিয়েছিলেন ১২টি উইকেটও। আর সেই বিশ্বকাপেই জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে খেলা অবিস্মরণীয় ম্যাচজেতানো ১৭৫ রানের অন্যতম এক ইনিংস। যা না থাকলে ভারতের হয়তো প্রথমবারের জন্য বিশ্বকাপটাই জেতা হত না।

বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারদের মধ্যে গণ্য করা হয় তাঁকে। তিনি, কপিল দেব রামলাল নিখাঞ্জ। ভক্তরা যাকে ভালোবেসে ডাকেন ‘হরিয়ানার হ্যারিকেন’। আজ, ৬ জানুয়ারি, তিনি পা দিলেন ৬২-তে। তাঁর জন্মদিনে রইল অশেষ শুভকামনা। সেই সঙ্গে নজর বুলিয়ে নেওয়া যাক তাঁর জীবনের কিছু অজানা কাহিনীর দিকে…

১. ছেলেবেলা থেকেই খেলার দিকে মনোযোগ ছিল কপিল দেবের। ছেলেকে যথেষ্ট উৎসাহও দিতেন তাঁর বাবা৷ এমনকি ছেলের স্বপ্নগুলি পূরণ করতে বাড়িতে দু’টি মহিষ কিনে আনেন তিনি। যাতে দুধ পান করে নিজেকে আরও মজবুত এবং খেলার উপযোগী করে তুলতে পারেন কপিল।

২. ঘরোয়া ক্রিকেট কেরিয়ারে মাত্র একবারই রঞ্জি ট্রফি জিতেছিলেন কপিল দেব। হরিয়ানার হয়ে ১৯৯১ সালে জেতেন তা৷

৩. নিজের আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেট কেরিয়ারে একবারের জন্যও রান আউট হননি কপিল দেব। যা এক কথায় একটি রেকর্ড।

৪. কপিল দেবই একমাত্র ক্রিকেটার-অলরাউন্ডার, যার কমপক্ষে ৫০০০ রান এবং ৪০০ উইকেট নেওয়ার এক অনন্য নজির রয়েছে।

৫. ক্রিকেট ছাড়ার পর শুরু করেন গলফ খেলা। লরেন্স ফাউন্ডেশনের এশিয়ান প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসাবে রয়েছে একমাত্র কপিল দেবের নামই।

৬. উইজডেনের বিচারে ২০০২ সালে শতাব্দীর সেরা ভারতীয় ক্রিকেটার মনোনীত হয়েছিলেন কপিল পাজি।

৭. ২০০৮ সালে ইন্ডিয়ান টেরিটরিয়াল আর্মির মাননীয় লেফটেন্যান্ট কর্নেল হিসাবেও সম্মানিত করা হয় তাঁকে।

৮. পেয়েছেন অর্জুন পুরস্কার৷ পদ্মশ্রী এবং পদ্মভূষণও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে।

৯. ২০১০ সালে তাঁকে আইসিসি ক্রিকেট ‘হল অফ ফেমে’র অন্তর্ভুক্তও করা হয়।

১০. খেলার পাশাপাশি কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ও করেছেন কপিল পাজি৷ প্রবীণ দেব স্টাম্পড, মুঝসে শাদি করোগী, দিলগি… ইয়ে দিল্লাগি, আর্য, চ্যাইন খুলি কি ম্যায়ন খুলি, ইকবাল ইত্যাদি মতো বেশ কয়েকটি বলিউডি ছায়াছবি তে তাঁর সংক্ষিপ্ত চরিত্র বেশ নজর কেড়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.