IPL 2020খেলার দুনিয়া

হার দিয়েই শুরু নাইটবাহিনীর এবারের আইপিএল যাত্রা

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ মুম্বইয়ের দুর্দান্ত খেলার মহিমায় প্রথম ম্যাচেই নাজেহাল হল নাইটবাহিনী। রাসেল, প্যাট কমিন্সে ভরসা রেখেও খুব একটা লাভ করতে পারল না শাহরুখের কেকেআর। মুম্বইয়ের ১৯৫ রানের বিরুদ্ধে কলকাতা করেছে মাত্র ১৪৬। নাইটবাহিনী ম্যাচ হারল ৪৯ রানে।

এইদিন আবুধাবিতে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় কেকেআর অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। প্রথমে ব্যাট করে কলকাতার সামনে ১৯৬ রানের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এই বড় টার্গেট চেজ করতে নেমে শুরুতেই একের পর এক উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। মাত্র ৭ রানে ট্রেন্ট বোল্টের শিকার হন কেকেআরের ওপেনার শুভমান গিল তার কিছু পরেই ৯ রান করে ফিরে যান কলকাতার আরেক ওপেনার সুনীল নারিন।

যশপ্রীত বুমরার শেষ ওভারে চারটি ছয়সহ নিয়েছেন ২৬ রান। অথচ এই বুমরাই আগের তিন ওভারে মাত্র ৫ রান দিয়ে আউট করেছেন কলকাতার সবচেয়ে বিপজ্জনক দুই ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেল (১১ বলে ১১) ও ইয়ন মরগানকে (২০ বলে ১৬ রান)।

এদিকে রোহিত একাই করলেন ৮০ রান। তাও মাত্র ৫৩ বলে। মারেন তিনটি চার এবং ছ’টি ছয়। শুধু তাই নয়, এর পাশাপাশি গড়লেন দু’টি নতুন রেকর্ডও। রানরেট বাড়াতে গিয়ে শিবম মাভির বলেই আউট হন। তরুণ পেসার শিভম মাভির শিকার হওয়ার আগে তিন চার ও ছয় ছক্কায় ৫৪ বল থেকে করেছেন ৮০ রান। যা তাকে দিয়েছে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারও।

তবে রোহিতের আগে ব্যাটিংয়ে ঝড় তুলেছিলেন তিনে নামা সুরিয়া কুমার যাদব। ২৮ বলে ৪৬ করে যাদবের রান আউট হওয়ার আগে মুম্বাইয়ের দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে আসে ৯০ রান।

কলকাতা দলে রাসেল, ইয়ন মর্গ্যানের মত দুর্দান্ত টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্ট ব্যাটসম্যান থাকার সত্ত্বেও কার্তিক কেন এত আগে নামলেন সেটাই ভাবাচ্ছে কলকাতার সমর্থকদের। তবে রোহিত আউট হতেই রান তোলার গতি কমে যায় মুম্বইয়ের। যদিও সেক্ষেত্রে কৃতিত্ব কিছুটা রয়েছে কেকেআর বোলারদেরও। শেষদিকে তাঁদের আঁটসাট বোলিং ২০০ রানের গণ্ডি পেরোতে দিল না মুম্বইকে।

শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ১৯৫ রানে থামে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ইনিংস। মাভি দু’টি উইকেট পান। এছাড়া নারিন এবং রাসেল একটি করে উইকেট পান।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.

Back to top button