বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

দুরত্ব সরিয়ে কোহলির বিদায়বেলায় আবেগপ্রবণ অশ্বিন! বিরাটের জন্য লিখলেন এই বার্তা

১১:৩০ এএম, জানুয়ারি ১৭, ২০২২

দুরত্ব সরিয়ে কোহলির বিদায়বেলায় আবেগপ্রবণ অশ্বিন! বিরাটের জন্য লিখলেন এই বার্তা

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে হারার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই টিম ইন্ডিয়ার টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন বিরাট কোহলি। শনিবার ট্যুইটারে পোস্ট করে নিজের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই বিসিসিআই-এর তরফে ট্যুইট করে বিরাটের অধিনায়কত্ব ছা়ড়ার বিষয়টিতে শিলমোহর দেওয়া হয়। ক্যাপ্টেনের বিদায়বেলায় তাঁকে নিয়ে বেশ আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছেন দলের অন্যান্য সতীর্থরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরাটকে নিয়ে একাধিক পোস্টে নিজেদের আবেগ উজার করে দিচ্ছেন টিম ইন্ডিয়ায় তাঁর নেতৃত্বে খেলা ক্রিকেটাররা। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালেন ভারতীয় অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনও।

এমনিতে অশ্বিনের সঙ্গে কোহলির সম্পর্ক বেশ অম্লমধুর। দলের স্বার্থে জুটি বেঁধে লড়াই করলেও দু'জনের মধ্যে চলে চাপা মনোমালিন্য। তবে কোহলির বিদায়বেলায় যাবতীয় দূরত্ব সরিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন বার্তা লিখলেন অশ্বিন। সদ্য প্রাক্তন ক্যাপ্টেনের উদ্দেশ্যে ট্যুইটারে এই অফ স্পিনার লিখেছেন, ক্রিকেটের অধিনায়ক সব সময়েই তাঁর রেকর্ডের জন্য সম্মানিত হন। একইসঙ্গে তাঁরা যে সাফল্য পান, তার জন্যও তাঁদের সম্মান করা হয়ে থাকে। আর অধিনায়ক হিসেবে এতদিনে বিরাট একটি বেঞ্চমার্ক তৈরি করে ফেলেছেন। অধিনায়ক হিসাবে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কায় বিরাটের যে সাফল্য, সেই কথা প্রত্যেকের মুখে মুখে ফিরবে।

পাশাপাশি, ভারতীয় দলের অধিনায়ক হিসাবে বিরাটের ঠিক কতখানি গুরুত্ব ছিল সেই বিষয়টিও তুলে ধরেছেন অশ্বিন। তাঁর কথায়, জয় শুধুমাত্র একটা ফলাফল ছাড়া আর কিছু নয়। কিন্তু ফসল কাটার আগে বীজ বপনটাই আসল। সেই প্রক্রিয়াটা বিরাট অত্যন্ত যত্ন সহকারে করে এসেছে। আর তার মধ্যে দিয়ে নিজের একটি মান তৈরির পাশাপাশি দলের সকলের জন্য প্রত্যাশার মানও তৈরি করেছিলেন। অধিনায়ক হিসেবে বিরাটের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি হল, ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কদের ছাপিয়ে যাওয়া। আর সেই সঙ্গে পরবর্তী প্রজন্মের কাছে এমন মান রেখে যাওয়া যেখান থেকে ভবিষ্যতের ক্রিকেটাররা শুধু সামনেই এগোতে চাইবে।

https://twitter.com/ashwinravi99/status/1482583589581737984?t=-8un58s74OlCintRY02UWQ&s=19

প্রসঙ্গত, কোহলির সঙ্গে অশ্বিনের ঠাণ্ডা লড়াইয়ের কথা কারও অজানা নয়। ক্রিকেট সমালোচকদের মতে, গত বছরের ইংল্যান্ড সফরের সময় কোহলির জন্যই প্রথম একাদশে সুযোগ পাননি অশ্বিন। এমনকি দীর্ঘদিন ধরে সাদা বলের ক্রিকেটে অশ্বিনের না ঢোকার পিছনে কারণও হলেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক। দলের অন্দরমহলে কোহলি-অশ্বিনের এই বিবাদ নিয়ে প্রায়ই কানাঘুষো নানা কথা শোনা যায়। তবে বিরাট ক্যাপ্টেন্সি ছাড়তেই সমস্ত বিবাদ মুছে তাঁকে নিয়ে নিজের আবেগ প্রকাশ করে দিলেন অশ্বিন।