করোনার নয়া প্রজাতি ‘ওমিক্রন’ নিয়ে চূড়ান্ত সতর্কতা জারি! কলকাতা বিমানবন্দরে নয়া বিধিনিষেধ

করোনার নয়া প্রজাতি ‘ওমিক্রন’ নিয়ে চূড়ান্ত সতর্কতা জারি! কলকাতা বিমানবন্দরে নয়া বিধিনিষেধ
করোনার নয়া প্রজাতি ‘ওমিক্রন’ নিয়ে চূড়ান্ত সতর্কতা জারি! কলকাতা বিমানবন্দরে নয়া বিধিনিষেধ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ‘ওমিক্রন’-এর আতঙ্ক এবার কলকাতাকেও স্পর্শ করল। করোনার এই নয়া প্রজাতি নিয়ে নতুন করে দেশে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। তাই সংক্রমণ ঠেকাতে আগাম সতর্কতা নিল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। কলকাতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জারি হল নয়া বিধিনিষেধ।

কলকাতা বিমানবন্দর সূত্রে খবর, ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলি থেকে আগত সমস্ত যাত্রীদের বিমানবন্দরেই RT-PCR পরীক্ষা করানো বাধ্যতামূলক করা হল। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত বিমানবন্দরেই দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে যাত্রীদের। তাও বিমানবন্দরের সর্বত্র প্রবেশ করা যাবে না। ওই যাত্রীদের অপেক্ষার তার জন্য একটি নির্দিষ্ট স্থান তৈরি রাখা হয়েছে। রিপোর্ট নেগেটিভ হলে বিমানবন্দর থেকে ছাড় মিলবে, কিন্তু তাও সাতদিনের হোম কিংবা ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। ৭ দিন পর আবার একবার করোনা পরীক্ষা করা হবে। আর রিপোর্ট পজিটিভ এলে বিমানবন্দর থেকেই সরাসরি ID হাসপাতালের আইসোলেশনে বিশেষ পর্যবেক্ষণে পাঠানো হবে। ১ ডিসেম্বর, বুধবার থেকেই এই বাড়তি সর্তকতা জারি করা হল।

বস্তুত ‘ওমিক্রন’ রুখতে ঝুঁকিপূর্ণ ১২টি দেশ, বাংলাদেশ, ব্রিটেন, দক্ষিণ আফ্রিকা, হংকং, চিন, সিঙ্গাপুর, ব্রাজিল, বতসোয়ানা, মরিশাস, জিম্বাবোয়ে, ইজরায়েল এবং নিউজিল্যান্ড থেকে আসা যাত্রীদের উপর বাড়তি নজরদারির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দর।

আর সেই কারণেই দুপুর ১.২০ মিনিট নাগাদ স্পাইসজেট-এর একটি বিমান বাংলাদেশ থেকে কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করলে সেই বিমানের প্রত্যেক যাত্রীরই বিমানবন্দরে RT-PCR টেস্ট করা হয়। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তাঁদের বিমানবন্দরের নির্দিষ্ট স্থানে বসিয়ে রাখা হয়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনার অন্য প্রজাতি ‘বিটা’, ‘ডেল্টা’ পর এখন চোখ রাঙাচ্ছে ওমিক্রন। গবেষণা বলছে, ১৫ বার মিউটেশনে সক্ষম করোনা ভাইরাসের এই নয়া প্রজাতি ইতিমধ্যে নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা হয়ে আরও ১০টি দেশে থাবা বসিয়েছে। ভারতে এখনও পর্যন্ত ‘ওমিক্রন’ আক্রান্ত হওয়ার খবর নেই। তাই এই নয়া প্রজাতির সংক্রমণ ঠেকাতে আগাম সতর্কমূলক পদক্ষেপ করতে শুরু করেছে কেন্দ্র ও রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। বিদেশ ফেরৎ, বিশেষত ঝুঁকিপূর্ণ দেশ থেকে আগত ব্যক্তিদের উপর নজরদারি বাড়াতে বিমানবন্দরগুলিতে বিশেষ নিজরদারি বাড়ানোর ব্যাপারে ইতিমধ্যে প্রতিটি রাজ্যের মুখ্য সচিবকে চিঠি দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব। সেই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতেই এবার কলকাতা বিমানবন্দরে বিশেষ সতর্কতা জারি করল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর।

এর পাশাপাশি ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলিতে যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবায় রাশ টানার ব্যাপারে ইতিমধ্যে দাবি উঠেছে। যদিও এব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি কেন্দ্র। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং পরিস্থিতি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর।