ফের নজির গড়ল কলকাতা, বছর ২১-এর ব্রেন ডেথ হওয়া যুবকের অঙ্গে বাঁচবে অনেকেই

ফের নজির গড়ল কলকাতা, বছর ২১-এর ব্রেন ডেথ হওয়া যুবকের অঙ্গে বাঁচবে অনেকেই
ফের নজির গড়ল কলকাতা, বছর ২১-এর ব্রেন ডেথ হওয়া যুবকের অঙ্গে বাঁচবে অনেকেই / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ ফের কলকাতা শহরে অঙ্গদানের নজির। বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবংয়ের বাসিন্দা বছর ২১- এর এক যুবক ভর্তি ছিলেন কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে। চিকিৎসকরা তাঁর ‘ব্রেন ডেথ’ ঘোষণা করার পরেই, অঙ্গদানের সিদ্ধান্ত নেন এই তরুণের পরিবার।

২৮ ফেব্রুয়ারি গানের অনুষ্ঠান শুনে, বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনার মুখে পড়েন। এরপর সবং হাসপাতাল, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল হয়ে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। কিন্তু আশার কথা শোনাতে পারেননি চিকিৎসকরা ওই যুবকের পরিবারকে। তাঁর পরিবারকে একসময়য় জানিয়ে দেওয়া হয় যে, ব্রেন ডেথ হয়েছে ওই যুবকের। এরপরেই চিকিৎসকরা ওই যুবকের পরিবারকে মরণোত্তর অঙ্গদানের প্রস্তাব দেন। যুবকের পরিবারও সন্তান হারানোর শোকের মধ্যেই অঙ্গদানের সিদ্ধান্তে সম্মতি জানান।

এরপর পরিবারের অনুমতি পেতেই, শুরু হয় প্রস্তুতি। হাসপাতালের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয়, রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে। এরপরেই রিজিওনাল অর্গান অ্যান্ড টিস্যু ট্রান্সপ্লান্ট অর্গানাইজেশনের তরফে একটি বিশেষজ্ঞ দল সংশ্লিষ্ট হাসপাতালে যান।

ওই যুবকের হৃদয় প্রতিস্থাপন করা হয়েছে ১৩ বছরের এক কিশোরের দেহে। হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে এই হৃদয় প্রতিস্থাপন হয়েছে। গতকাল, অর্থাৎ মঙ্গলবার বিকেল ৪টা নাগাদ শহরের ওই বেসরকারি হাসপাতাল থেকে গ্রিন করিডর করে ওই যুবকের হৃদয় নিয়ে যাওয়া হয় হাওড়ার হাসপাতালে। বিকেল ৪টা ২৫ মিনিটে শুরু হয় হৃদয় প্রতিস্থাপন। জানা গিয়েছে, আপাতত ভালো রয়েছে ১৩ বছরের ওই কিশোর। এই অঙ্গদানে নতুন করে জীবন ফিরে পাবেন অনেকেই।

এছাড়াও যুবকের দু’টি কিডনি, লিভার এবং কর্ণিয়াও সংগ্রহ করা হয়েছে। তাঁর একটি কিডনি এবং লিভার ওই বেসরকারি হাসপাতালেই দুই গ্রহীতার শরীরে প্রতিস্থাপিত হয়। ওপর একটি কিডনি পেয়েছেন এসএসকেএমের এক গ্রহীতা। ওই যুবকের পরিবার কষ্টের মধ্যেও একটাই আবেদন জানাচ্ছেন, অন্য পরিবারও যেন তাঁদেরও মতোই এগিয়ে আসেন মরণোত্তর অঙ্গদানে। যাতে আরও অনেকের প্রাণরক্ষা হয়।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.