শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

শহরে কি বন্ধ হবে হুক্কা বার? বড় নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

মৌসুমী

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ০৬:১৯ পিএম | আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ০৬:১৯ পিএম

শহরে কি বন্ধ হবে হুক্কা বার? বড় নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের
শহরে কি বন্ধ হবে হুক্কা বার? বড় নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

রাজ্যে নির্দিষ্ট কোন আইন নেই। তাই বন্ধ হবেনা হুক্কা বার। মঙ্গলবার এমনটাই জানিয়ে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। অর্থাৎ কলকাতা বা বিধাননগর এলাকায় কোনভাবেই হুক্কা বার বন্ধ করা যাবেনা বলে স্পষ্ট নির্দেশ দিল আদালত। এর মাধ্যমেই ফের একবার মুখ থুবড়ে পড়ল মেয়রের নির্দেশ।

এদিন বিচারপতি রাজশেখর মান্থা জানান, সিগারেট খাওয়ার অনুমোদন থাকলে হুক্কাতে নিকোটিন এবং হারবাল রয়েছে তাতে বাধা কোথায়? পুলিশ কমিশনের রিপোর্ট সম্পূর্ণ ভেক বলেও এদিন মন্তব্য করেন তিনি। বিচারপতি জানান, একজনের মেয়রের কথার ভিত্তিতে হুক্কা বার এভাবে বন্ধ করা যাবে না। এক্ষেত্রে যদি কোন রেস্তোরাঁ থেকে মাদক ব্যবহারের কোনরকম প্রমাণ মিলে তাহলে সে ক্ষেত্রে পুলিশ ব্যবস্থা নিতে পারে।

এদিন বিচারপতি আরো জানান, হুক্কাবার খোলার জন্য ট্রেড লাইসেন্স এর প্রয়োজন হয় না। এতে রাজ্যের আয় হবে। যারা হুক্কা খাবে সেটা সম্পূর্ণ তাদের বিষয়। একই সঙ্গে তিনি জানান রাজ্যকে হুক্কা বার বন্ধ করতে গেলে নতুন ভাবে আইন সংশোধন করতে হবে। এই নিয়ে পুলিশ কোন রকম পদক্ষেপ নিতে পারবে না। তবে হুক্কা বারে আইনের বাইরে কোন ঘটনা ঘটলে সেক্ষেত্রে অবশ্যই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে পুলিশ।

প্রসঙ্গত,ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছিলেন, "যদি দেখা যায় কোনও রেস্তোরাঁয় গোপনে হুক্কা বার চালানো হচ্ছে, সেক্ষেত্রে কড়া পদক্ষেপ করা হবে। প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট রেস্তোরাঁ লাইসেন্সও বাতিল করে দেওয়া হতে পারে। বস্তুত, শহরের বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় অভিযান চালানোর জন্য় ইতিমধ্যে কলকাতা পুলিসের সঙ্গে আলোচনাও সেরে নিয়েছেন পুর আধিকারিকদের"।

প্রসঙ্গত ২০১০ সাল থেকে কলকাতায় হুক্কা বারের লাইসেন্স দেওয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু তা সত্বেও আইনকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে রেস্তোরাঁ গুলোতে হুক্কাবার চলছে, জোরকদমে। অনলাইনে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতেন রেস্তোরাঁর মালিকরা। তখনই কায়দা করে হুক্কা বারের জন্য অনুমোদন আদায় করা হতো। কিন্তু অনলাইনেও সেই অপশন এখন বন্ধ করে দিয়েছে পুরসভা।