ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা! ‘প্রতীকী কুম্ভমেলা’ পালনের অনুরোধ জানিয়ে, টুইট প্রধানমন্ত্রীর

ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা! 'প্রতীকী কুম্ভমেলা' পালনের অনুরোধ জানিয়ে, টুইট প্রধানমন্ত্রীর
ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা! 'প্রতীকী কুম্ভমেলা' পালনের অনুরোধ জানিয়ে, টুইট প্রধানমন্ত্রীর / ছবি সৌজন্যে- Screenshot Facebook Live Video By Narendra Modi Official Facebook Page

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশব্যাপী ভয়ঙ্কর থেকে ভয়ঙ্করতর হয়ে উঠছে করোনা। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল গোটা দেশ। মারণ করোনা তার রূপ পরিবর্তন করে আরও ভয়ানক হয়ে উঠেছে। সংক্রমণ বাড়ার পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। এদিকে সুস্থতার হারও নিম্নমুখী, যা উদ্বেগ আরও বাড়াচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণ রুখতে, ‘প্রতীকী কুম্ভমেলা’ পালনের আর্জি জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে প্রধানমন্ত্রী লেখেন, ‘দুটো শাহী স্নান হয়ে গিয়েছে। এবার আমার অনুরোধ, করোনা মহামারীর কথা বিবেচনা করে প্রতীকী কুম্ভমেলা পালন করা হোক। এর ফলে এই সংকটের মুহূর্তে লড়াই করার শক্তি পাওয়া যাবে।’ তিনি আরও লেখেন যে, ‘আচার্য মহামণ্ডলেশ্বর পূজ্য স্বামী অবধেশানন্দ গিরিজির সঙ্গে আজ ফোনে কথা বলেছি। সমস্ত সন্তদের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিয়েছি। প্রশাসনের সঙ্গে সন্ন্যাসীরা সহযোগিতা করছেন। আমি তার জন্য তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছি।’

উল্লেখ্য, এই টুইটের কিছু সময় আগেই প্রধানমন্ত্রী আরও একটি টুইট করেন। যেখানে তিনি বাংলার ভোটারদের বিপুল সংখ্যায় ভোট দেওয়ার অনুরোধ জানান। এদিকে করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্তের দিকে লক্ষ রেখে বারবার জমায়েতের উপর নিয়ন্ত্রণ আনার কথা বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই পরিস্থিতির মধ্যেই হরিদ্বারে চলছে কুম্ভমেলা। কুম্ভমেলা চলাকালীনই সেখানে বেশ কিছু সন্ন্যাসীর শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা গিয়েছে। এর জেরে কুম্ভমেলা ছেড়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিরঞ্জনি আখড়া ও তপোনিধি শ্রী আনন্দ আখড়া। অন্যদিকে, অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদের সভাপতি নরেন্দ্র গিরি মহারাজও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এই মুহূর্তে তিনি এইমসে চিকিৎসাধীন। সব মিলিয়ে সাধু-সন্তদের মধ্যেও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে মারণ করোনা। আর সেই দিকে লক্ষ রেখেই প্রধানমন্ত্রী আজ এই টুইট করেন।