‘হুবহু এক ধারায়’! তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে আরও চারটি মামলা রুজু হল ত্রিপুরায়

‘হুবহু এক ধারায়’! তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে আরও চারটি মামলা রুজু হল ত্রিপুরায়
‘হুবহু এক ধারায়’! তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে আরও চারটি মামলা রুজু হল ত্রিপুরায়

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ত্রিপুরায় ফের নতুন মামলা দায়ের তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে। এর আগে ২ টি মন্তব্যের জেরে চলতি সপ্তাহেই ৩ টি মামলা দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যেই তাঁকে নোটিস পাঠিয়েছে অমরপুর এবং ওম্পি থানা। আবার তারও আগে আরও দুটি মামলা দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। সব মিলিয়ে মোট ৯ টি মামলা দায়ের হল কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে।

মামলার তদন্তে চলতি সপ্তাহেই তৃণমূল মুখপাত্রকে তলব করে ত্রিপুরা পুলিশ। ওমরপুর ও ওম্পি থানা ইতিমধ্যেই নোটিস পাঠিয়েছে। গতবারই মামলার খবর সামনে আসার পর, কুণাল ঘোষ বলেন যে, রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়েই বিজেপি একের পর এক মামলা দায়ের করে তাঁর কণ্ঠরোধ করার চেষ্টা করছে।  আর এবার তিনি নিজেই নয়া মামলা দায়েরর খবর টুইট করে জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘ত্রিপুরা সরকার আমার নামে আরও চারটি মামলা দিল। হুবহু এক ধারায়। এখনও পর্যন্ত এই ইস্যুতে ৯টি মামলা হল। ওরা জয় শ্রীরাম বলে হামলা করবে। আমি সীতার পাতালপ্রবেশ বললে মামলা। আজ আগরতলা যাচ্ছি। পুলিশ এত মামলা, নোটিসে পরিশ্রম না করে আমাকে গ্রেফতার করুক। তৃণমূলকে ঠেকাতে হামলা-মামলার ছক।’

সম্প্রতি তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ প্রশ্ন তুলেছিলেন যে, রাম রাজ্যে কেন সীতার পাতাল প্রবেশ? পাশাপাশি রাজনীতিতে বিজেপির ‘জয় শ্রীরাম রাম’ স্লোগানের বিরোধিতা করেছিলেন কুণাল ঘোষ। তাঁর বিরুদ্ধে মূলত এই দুটি অভিযোগ রয়েছে। আগরতলার পশ্চিম থানার তরফ থেকে এর আগে নোটিস জারি হয়েছিল। এবারের দুই থানার তরফে পাঠানো নোটিসে এই বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।

এই মুহূর্তে ত্রিপুয়ার বিজেপি এবং তৃণমূলের সংঘাতে যে রাজনৈতিক আবহ তৈরি হয়েছে, তাতে কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে এই নয়া মামলা আরও ঘৃতাহুতি করল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এদিকে, আগরতলায় এখন পুরভোটের প্রস্তুতি চলছে। এই সপ্তাহে উপস্থিত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

অন্যদিকে, আরও নতুন তিনটি মামলা প্রসঙ্গে কুণাল ঘোষ বলেন, ‘বিজেপি একেবারে কোণঠাসা। ওরা ভয় পেয়ে গিয়েছে। তৃণমূলের নেতাদের হামলা-মামলা এসব দিয়ে ব্যতিব্যস্ত করার চক্রান্ত করছে ওরা। আবার তিনটে মামলা দিয়েছে তাই। ওরা রাম রাজ্য বলতে পারে। আমি সীতার অগ্নিপরীক্ষা, সীতার পাতালপ্রবেশ বলতে পারব না। ওরা মামলা দিচ্ছে। ত্রিপুরার বিভিন্ন থানায় ঘুরে ঘুরে মামলা দিচ্ছে। আমারই ভালো। ত্রিপুরা অত্যন্ত সুন্দর রাজ্য। ওখানকার অনেক জায়গায় আমার ঘোরা হয়নি। এবার ঘুরব।’

এখানেই শেষ নয়। তাঁর আরও সংযোজন, ‘কোনও নোটিস পেলে আমি সাধারণত সশরীরে সেখানে যাই। কিন্তু এবার আদালত ঠিক করে দিক, রামায়ণের কোন অংশটা বিজেপি বলবে আর কোন অংশটা আমরা বললে বিজেপি মামলা করবে। এটা তো হবে না। ওরা যদি ভাবে মামলা দিয়ে আমার কন্ঠরোধ করবে, তা হতে পারে না। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যাওয়ার পর ত্রিপুরা উদ্বীপ্ত হয়ে রয়েছে। ওখানকার তৃণমূল কর্মীদের ওপর হামলা হচ্ছে।’