মোদীর ৪ ঘণ্টার সফরের জন্য মধ্যপ্রদেশ সরকার ব্যয় করতে চলেছে ২৩ কোটিরও বেশি!

মোদীর ৪ ঘণ্টার সফরের জন্য মধ্যপ্রদেশ সরকার ব্যয় করতে চলেছে ২৩ কোটিরও বেশি!
মোদীর ৪ ঘণ্টার সফরের জন্য মধ্যপ্রদেশ সরকার ব্যয় করতে চলেছে ২৩ কোটিরও বেশি!

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আগামী সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মধ্যপ্রদেশ সফরে যাচ্ছেন। মধ্যপ্রদেশে আগামী সপ্তাহে আদিবাসী যোদ্ধাদের সম্মান জানাতে উৎসব পালিত হতে চলেছে। সেই উৎসব উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর এই মধ্যপ্রদেশ সফর। প্রধানমন্ত্রী মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল শহরে এই অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে মাত্র ৪ ঘণ্টা উপস্থিত থাকবেন। আর মঞ্চে উপবিষ্ট থাকবেন সর্বসাকুল্যে ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট। এমনটাই সূত্রের খবর।

ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি তুঙ্গে। এদিকে এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে ২৩ কোটি টাকারও বেশি ব্যয় করতে চলেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অন্তত দু’লক্ষ জনজাতিভুক্ত মানুষ অনুষ্ঠান দেখতে উপস্থিত থাকবেন। ময়দানকে সাজিয়ে তোলা হবে জনজাতি ব্যক্তিত্বদের ছবি দিয়ে। যার মধ্যে ১৩ কোটি টাকা শুধু ব্যয় হবে জনজাতিভুক্তদের জামবুরি ময়দানে আনতে।

এবার থেকে ১৫ নভেম্বর ভগবান বিরসা মুণ্ডার জন্মদিবসটিকে ‘জনজাতীয় গৌরব দিবস’ হিসেবে দেশে উদযাপন করা হবে। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে সরকারি সিলমোহর পড়েছে। আর এই বিশেষ দিনটি এবার মধ্যপ্রদেশে পালন করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই অনুষ্ঠানে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রী এই সমাবেশে ভাষণ দেওয়ার পাশাপাশি জাম্বুরি ময়দানে দেশের প্রথম সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব-নির্মিত হবিবগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনটিরও উদ্বোধন করবেন।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে জনজাতি গৌরব দিবসের অংশ হিসাবে, বিরসা মুন্ডা এবং অন্যান্য উপজাতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অবদানকে স্মরণ করার জন্য ১৫ থেকে ২২ নভেম্বর জাতীয়ভাবে সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

জানা গিয়েছে, জাম্বুরি ময়দানের বিস্তীর্ণ স্থানটিতে হতে চলা এই অনুষ্ঠান মধ্যপ্রদেশ জুড়ে দুই লাখ আদিবাসী দেখতে পাবে এবং পুরো স্থানটি উপজাতীয় শিল্প এবং উপজাতীয় কিংবদন্তির ছবি দিয়ে সজ্জিত করা হচ্ছে অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে। এই কাজের জন্য এক সপ্তাহ ধরে তিনশোর বেশি শ্রমিক কাজ করে চলেছেন। অনুষ্ঠানে আসা আদিবাসীদের জন্য বড় বড় প্যান্ডেলও তৈরি করা হয়েছে।

এই অনুষ্ঠানে মোট ৫২ টি জেলা থেকে আগত মানুষদের যাতায়াত, খাওয়া এবং থাকার জন্য ১২ কোটির বেশি এবং গম্বুজ, তাঁবু, সাজসজ্জা এবং প্রচারের জন্য ৯ কোটির বেশি ব্যয় করতে চলেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। রাজ্যে তপশিলি উপজাতিদের জন্য সংরক্ষিত ৪৭টি আসন রয়েছে। ২০০৮ সালে বিজেপি ২৯টি আসনে জিতেছিল; ২০১৩ সালে সংখ্যাটি বেড়ে হয়েছে ৩১, কিন্তু ২০১৮ সালে ৪৭টির মধ্যে বিজেপি পেয়েছিল মাত্র ১৬ টি আসন।