অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি

অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি / নিজস্ব ছবি
অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি / নিজস্ব ছবি

বিয়েবাড়ি মানেই চারদিকে ধুমধাম৷ নিমন্ত্রিত অতিথিদের হই-হট্টগোল লেগেই থাকে চারপাশে। তবে করোনা আবহে বিয়েবাড়িতে বর্তমানে ৫০ জনের বেশি অতিথি সমাগম নিষিদ্ধ। তাই সাধারণত ঘরোয়া অনুষ্ঠান করেই বিয়ে সারছেন অধিকাংশ পাত্র-পাত্রী। কিন্তু নিজেদের বিয়ের অনুষ্ঠানকে স্মরণীয় করে রাখতে কে না চায়! এবং তাতে যদি সামাজিক দায়িত্বও পালন করা যায়, তাহলে তো সোনায় সোহাগা! সম্প্রতি নিজেদের বিয়ের অনুষ্ঠানে এমনই অভিনব উদ্যোগ নিলেন মালদার এক নবদম্পতি। নিজেদের বৌভাতে আয়োজন করলেন রক্তদান ও বন মহোৎসব কর্মসূচির।

অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি / নিজস্ব ছবি
অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি / নিজস্ব ছবি

গত ১৪ জুলাই, বুধবার বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মালদার বাসিন্দা প্রমথ ও সুমি। আজ, শুক্রবার ছিল তাঁদের বৌভাতের অনুষ্ঠান। এই দিনটিকেই একটু অন্যভাবে পালন করলেন তাঁরা। এদিন তাঁদের মালদার গাজোল ব্লকের আহোড়ার দুর্গাপুরের বাড়িতে আয়োজিত হয়েছিল একটি রক্তদান শিবির৷ বৌভাতের অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রিত ছিলেন ৫০ জন। তবে নিছক অতিথি হিসেবেই নন, তাঁরা এসেছিলেন রক্তদাতা হিসেবে।

এদিন পাত্র প্রমথ স্বয়ং রক্ত দিয়ে শিবিরের সূচনা করেন। এছাড়া আরও ২২ জন ‘রক্তবন্ধু’ রক্তদান করেন। শিবিরের পর পাত্রী সুমি বৃক্ষরোপণ করে বন মহোৎসবের আহ্বান জানান। এরপর শিবিরের প্রত্যেক রক্তদাতাকে একটি করে চারাগাছ উপহার দেওয়া হয়। ‘সবুজের সঙ্গে আমরা সবাই নতুন সৃষ্টির তরে’, প্রত্যেককে এই বার্তাও দেওয়া হয়।

অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি / নিজস্ব ছবি
অভিনব উদ্যোগ! বৌভাতে রক্তদান শিবির ও বন মহোৎসবের আয়োজন করে নজির গড়লেন এই বাঙালি নবদম্পতি / নিজস্ব ছবি

এদিনের এই অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন পাকুয়াহাট সমবেত প্রয়াসের কোষাধক্ষ্য সুশান্ত সরকার, মালদা মেডিকেল কলেজ ব্লাড সেন্টারের চিকিৎসক সুশান্ত ব্যানার্জি, মালদার রক্তদান আন্দোলনের অন্যতম কর্মী সুরজিৎ মন্ডল ও মালদা জেলা শাখার জেলা রক্তদান শিবির আহ্বায়ক অনিল কুমার সাহা প্রমুখ বিশিষ্ট সব ব্যক্তি। প্রত্যেকে নবদম্পতিকে প্রাণভরে আশীর্বাদও করেছেন।