পড়ুয়াদের সরকারি বৃত্তি পেতে এই শতাংশ নম্বরই যথেষ্ঠ! বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

পড়ুয়াদের সরকারি বৃত্তি পেতে এই শতাংশ নম্বরই যথেষ্ঠ! বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর
পড়ুয়াদের সরকারি বৃত্তি পেতে এই শতাংশ নম্বরই যথেষ্ঠ! বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

উচ্চশিক্ষায় স্কলারশিপ পাওয়ার পথ আরও সহজ করল রাজ্য সরকার। এবার থেকে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ পেতে লাগবে না ৭৫ শতাংশ নম্বর। বদলে ৬০ শতাংশ নম্বর পেলেই মিলবে স্কলারশিপের সুযোগ। বৃহস্পতিবার এমনটাই ঘোষণা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

উল্লেখ্য, রাজ্যে সাধারণ মেধাবী পড়ুয়াদের জন্য স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তি প্রদান করে আসছে মমতা সরকার। এতদিন তা পেতে গেলে পড়ুয়াদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে ন্যূনতম ৭৫ শতাংশ নম্বর আবশ্যিক ছিল। এবার সেই মাঠকাঠিই কমালেন মুখ্যমন্ত্রী। ঘোষণা করলেন, “আগে ৭৫ শতাংশ নম্বর পেলে উচ্চশিক্ষায় স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তির সুযোগ পেতেন পড়ুয়ারা। এ বছর থেকে আমরা সেই নম্বর ৬০ শতাংশ করে দিয়েছি।”

এদিন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের কৃতী ছাত্রছাত্রীদের ভার্চুয়ালি সংবর্ধনা দেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল রাজ্য সরকার। সেখানেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্কলারশিপ সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় খোলসা করলেন। পাশাপাশি বিশ্ব সহ ভারতের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পড়াশুনোর বিবিধ তথ্য বাংলার ছাত্রছাত্রীদের হাতের মুঠোয় আনতে একটি নতুন সরকারি পোর্টালেরও ব্যবস্থা করছে রাজ্য সরকার। এই বিষয়ে মমতা জানান, “ভারত সহ সারা বিশ্বে যত বিশ্ববিদ্যালয় আছে, সেগুলির পড়াশুনো সংক্রান্ত একটি পোর্টাল চালু করছি। এখানে সবকিছু বিনামূল্যে পাওয়া যাবে। আমেরিকা না গিয়ে অনলাইনে সব দেখে নেওয়া যাবে। এটা পড়ুয়াদের জন্য করছি যাতে তোমরা আরও বড় হতে পারো।”

একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বড় ঘোষণা, কিছুদিনের মধ্যেই সবুজসাথীতে ৩ লক্ষ সাইকেল ও দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়াদের ট্যাব দেওয়া হবে। পড়ুয়াদের মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা, “সংখ্যালঘুদের জন্য ঐক্যশ্রী ও অনগ্ররসদের জন্য শিক্ষাশ্রীর ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও সব মেয়েদের জন্য রয়েছে কন্যাশ্রী। এছাড়াও সাইকেল আর ট্যাব দেওয়া হবে। তোমরা এই সুযোগগুলো কাজে লাগাও। জীবনে অনেক বড় হও।”