প্রবীণ নাগরিকের জন্য পেনশন, ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে প্রত্যেক বিধবা পাবেন ভাতা, বাজেটে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

প্রবীণ নাগরিকের জন্য পেনশন, ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে প্রত্যেক বিধবা পাবেন ভাতা, বাজেটে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর
প্রবীণ নাগরিকের জন্য পেনশন, ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে প্রত্যেক বিধবা পাবেন ভাতা, বাজেটে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর / ছবি সৌজন্যে- Posted on Facebook By @MamataBanerjeeOfficial

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ সামনেই রাজ্য বিধানসভা ভোট। আর ভোটের মুখে কল্পতরুর ভূমিকায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র অসুস্থ থাকায়, শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাজেট পেশ করেন।

উল্লেখ্য, রাজ্যের বিধানসভা ভোটের আগে এটাই রাজ্যের শাসক দলের শেষ বাজেট পেশ। তাই স্বাভাবিকভাবেই এই বাজেটের আলাদা গুরুত্ব ছিল। এদিকে অন্তর্বর্তীকালীন বাজেট পেশের আগে বিধানসভায় হইচই হয়৷ অধিবেশন বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয় বিরোধী দল বাম ও কংগ্রেস৷ এইরকম একটা পরিস্থিতিতে, বাজেট পেশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের রাজ্যের প্রবীণ নাগরিক এবং বিধবাদের জন্য অন্তর্বর্তী বাজেটে বড় ঘোষণা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। বাজেট ঘোষণায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে রাজ্যের সব প্রবীণ বাসিন্দাই মাসিক পেনশন পাবেন। শুধু রাজ্যের প্রবীণ নাগরিকরাই নন, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের বিধবাদের জন্য বড় ঘোষণা করেন। তিনি জানিয়েছেন ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রত্যেক বিধবাকে মাসিক ভাতা দেবে রাজ্য সরকার৷

উল্লেখ্য, এক্ষেত্রে এই সুবিধা রাজ্যের সব ধর্ম ও বর্ণের বিধবারাই পাবেন। এই দুই প্রকল্পের জন্য মোট ১০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করার ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তবে, মাসিক কত টাকা করে পেনশন বা ভাতা দেওয়া হবে, সে বিষয়ে কিছু বলেননি মুখ্যমন্ত্রী। বাজেট পুস্তিকাতেও সে বিষয়ে কিছু বলা নেই। মূলত আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে, এই বাজেটে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যেন কোনও অভিযোগের অবকাশ রাখতে চাননি।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.