ফের বাংলায় ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল কংগ্রেস, আত্মবিশ্বাসী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ফের বাংলায় ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল কংগ্রেস, আত্মবিশ্বাসী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
ফের বাংলায় ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল কংগ্রেস, আত্মবিশ্বাসী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন সমাপ্ত। এখন শুধু ২ তারিখ ফল প্রকাশের অপেক্ষা। তবে, তার আগে আজ তৃণমূলের প্রার্থী এবং নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে একুশের বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের আগে, আটটির মধ্যে ৬ টি এক্সিট পোলই তৃণমূলের পক্ষে মতামত দিয়েছে। আজ দলের বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠকেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী, নিজের জয় নিয়ে। তাঁর বিশ্বাস দুই-তৃতীয়াংশ আসনে জিতে, বাংলার ক্ষমতায় ফিরছে তৃণমূল কংগ্রেস।

আজ দলের সঙ্গে বৈঠকে দলীয় নেতাদের উদ্দেশে মমতার বার্তা, ‘সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন নিয়ে ক্ষমতায় আমরাই ফিরছি।’ এছাড়াও আজকের ৪৫ মিনিটের বৈঠকে গণনা দিনে কী করণীয়, তা প্রার্থী এবং এজেন্টদের বুঝিয়ে দিলেন তৃণমূল নেত্রীই। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এও আশাপ্রকাশ করে জানিয়েছেন যে, উত্তরবঙ্গ এবং জঙ্গলমহলে ভাল ফল করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

এদিন বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পোস্টাল ব্যালট গণনায় সাবধান থাকার পরামর্শ দেন। বলেন, ভাল করে নজরদারি করতে। পাশাপাশি কাউন্টিং নিয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘গণনার সময় টেবিল ছেড়ে আসা যাবে না। ভোরবেলা ঢুকে যাবেন আপনারা। কোনও জায়গা ছাড়া যাবে না। সব নজর রাখবেন। আমাদের অনেক আসন আছে, যেখানে জয় নিশ্চিত। সেখানে বিজেপি সমস্যা করতে পারে৷ ফলে সাবধানে থাকুন। শেষ আসনের শেষ জায়গা অবধি বসে থাকবেন। কোনওভাবেই বেরিয়ে আসবেন না।’

উত্তরবঙ্গ নিয়ে এদিন তিনি বলেন, ‘উত্তরবঙ্গে বিশেষ নজর দিন। ওখান থেকে আমাদের আসন অনেক আসবে। বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, জলপাইগুড়িতে বেশ কিছু আসন আছে, যেখানে শুরুর দিকে আমরা পিছিয়ে থাকতে পারি। দুঃখ করে বেরিয়ে আসবেন না। ওগুলো আমরাই জিতব। শেষ অবধি অপেক্ষা করতে হবে।’

এদিনের বৈঠকে নেত্রী বলেন যে, ‘ফর্ম ১৭ ভাল করে দেখে, তারপর গণনা শুরু করতে দেবেন।’ অন্যদিকে খাতা, পেন সঙ্গে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি কাউন্টিং সেন্টারে কোনও ভাবেই অন্যের দেওয়া খাবার, সিগারেট নিতে নিষেধ করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

সরাসরি যোগাযোগের জন্যে দুটি হেল্পলাইন নম্বর দেওয়া হয়েছে। সেখানে যোগাযোগ করতে বলেছেন নেত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন দলের নেতাদের উদ্দেশে বলেন, ‘কোনও প্রলোভনে পা দেবেন না। মেশিন ছেড়ে যাবেন না।’

উল্লেখ্য, তৃণমূল কংগ্রেসের এই মুহূর্তে একটাই লক্ষ্য, শেষমুহূর্তে যেন কোনও ভুল না হয়। এর সঙ্গে বেশি ব্যবধানে নিজের জয় সুনিশ্চিত করতেও বদ্ধপরিকর তৃণমূল কংগ্রেস।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বাংলায় নির্বাচনের আগে তৃণমূলের বহু নেতাই গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন। ফল বেরোবার পর, সেই ধারাই বজায় থাকে কিনা এবং শেষ হাসিটা কোন দল হাসে, সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা। তাই এখন শুধুই অপেক্ষা, ২ তারিখের। বাংলার কোন আসনে, কোন প্রার্থীর ভাগ্যে কী লিখে রেখেছে বাংলার জনগণ সেটাই দেখা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.