দুর্ঘটনার জেরেই আঘাত পেয়েছেন মমতা, রিপোর্ট দিয়ে জানাল কমিশন

দুর্ঘটনার জেরেই আঘাত পেয়েছেন মমতা, রিপোর্ট দিয়ে জানাল কমিশন
দুর্ঘটনার জেরেই আঘাত পেয়েছেন মমতা, রিপোর্ট দিয়ে জানাল কমিশন

নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারে সেদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির উপর কোনও হামলার ঘটনা ঘটেনি। দুর্ঘটনার ফলেই আঘাত লাগে মমতা ব্যানার্জির । রিপাের্ট পেশ করে জানিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন ।

এদিন, রাজ্যে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক এবং বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে যে রিপাের্ট পেশ করেন। তাতে কোথাও হামলার কথা উল্লেখ করা হয়নি । রিপাের্টে স্পষ্ট বলা হয়েছে, নিছক দুর্ঘটনা থেকেই আগাত লাগে মুখ্যমন্ত্রীর । এর পিছনে কোনও ষড়যন্ত্র নেই ।

অন্যদিকে, জেলা প্রশাসনের তরফে যে রিপাের্ট কমিশনে জমা দেওয়া হয়েছিল তাতেও বলা হয়েছিল দরজা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরই আঘাত লাগে মুখ্যমন্ত্রীর । নবান্নের তরফেও প্রথম যে রিপাের্টটি দেওয়া হয়েছিল তাতে হামলার কথা উল্লেখ করা ছিল না।

এদিকে, এদিন নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহত হওয়ার ঘটনায় মুখ্যসচিবের দেওয়া রিপোর্টে খুশি নয় নির্বাচন কমিশন। তাই ফের রিপোর্ট তলব করে অস্পষ্টতা কাটাতে বলা হয়েছে তাঁকে। শুক্রবার কমিশনকে দেওয়া ওই রিপোর্টে মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার বন্দোবস্ত ও ঘটনাক্রম বর্ণনা করা হলেও কী করে মুখ্যমন্ত্রী আহত হলেন তা স্পষ্ট করে কিছু লেখা নেই। সেই কারণ জানিয়ে শনিবার ফের রিপোর্ট দিতে বলেছে কমিশন।

শুক্রবার পেশ করা রিপোর্টে মুখ্যসচিব জানান, মুখ্যমন্ত্রী বারবার সূচি বদল করায় তাঁর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছিল পুলিশ আধিকারিকদের। মুখ্যমন্ত্রী আহত হওয়ার সময় তাঁর কনভয়ের সঙ্গে ছিল বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী। ছিলেন মেদিনীপুরের ডিআইজি ও নন্দীগ্রামে ওসি।

ঘটনাক্রম উল্লেখ করে জানানো হয়, সেই সময় নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারে প্রচণ্ড ভিড় ছিল। রাস্তার পাশে ছিল একটি খুঁটি। গাড়ির দরজা চেপে মুখ্যমন্ত্রী আহত হন। তবে গাড়ির দরজা কী ভাবে চেপে গেল তার উল্লেখ নেই রিপোর্টে। এখানেই আরও স্পষ্টতা চেয়েছে কমিশন। মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় যে রিপোর্ট কমিশনকে জমা দিয়েছেন তা ত্রুটিপূর্ণ বলে জানিয়েছেন এক শীর্ষ আধিকারিক।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.