ইভিএম মেশিনের গণনায় মমতা এগিয়ে থাকলেও, শেষ হাসি কে হাসবে নন্দীগ্রামে

ইভিএম মেশিনের গণনায় মমতা এগিয়ে থাকলেও, শেষ হাসি কে হাসবে নন্দীগ্রামে
ইভিএম মেশিনের গণনায় মমতা এগিয়ে থাকলেও, শেষ হাসি কে হাসবে নন্দীগ্রামে

চার মাস আগে রাজ্যজুড়ে ছেড়ে যাওয়া পোস্টারের সত্যতা প্রমাণ হল আজ। পশ্চিমবঙ্গের মানুষ বুঝিয়ে দিল, বাংলা তার নিজের মেয়েকে চায়। বিপুল ভোটে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে নিজের পায়ের তলার জমি ছিনিয়ে নিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রাম আসন থেকে এখনো পর্যন্ত তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নন্দীগ্রামে ইভিএম মেশিনের ভোটের গণনা অনুযায়ী ১২০০ ভোটে জয়ী হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হেরে গিয়েছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। যদিও এখনও পোস্টাল ব্যালটের গণনা বাকি।

তৃণমূল না বিজেপি, কার হাতে থাকবে পশ্চিমবঙ্গের ভার? পাশাপাশি কে জিতবেন ‘হাইভোল্টেজ’ নন্দীগ্রামের যুদ্ধে? ওই আসনে যুযুধান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বনাম শুভেন্দু অধিকারীর মধ্যে কে এগিয়ে, কে-ই বা পিছিয়ে— জানতে রবিবার সকাল থেকেই মুখিয়ে ছিল আম জনতা। শুরুতে এগিয়ে ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী, ব্যবধান কমিয়ে মমতাও পিছনে ফেলে দেন শুভেন্দুকে। জোর টক্কর চলছিল নন্দীগ্রাম আসনে। ১৬ রাউন্ডের গণনা শেষে মাত্র ৬ ভোটে এগিয়ে ছিলেন শুভেন্দু। এরপর ফের গণনা শুরু হলে অনেকটাই এগিয়ে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুভেন্দুকে পিছনে ফেলে ১২০০ ভোটে এগিয়ে ছিলেন তৃণমূল নেত্রী।

বিকেলেই শেষ হয়েছে ওঠা-নামার খেলা। এ যেন কোনও থ্রিলার সিনেমাকেও হার মানালো। যত বেলা গড়িয়েছে তত জমাট বাঁধতে শুরু করেছে উৎকণ্ঠা। তবে জমি আন্দোলনের ভূমিতে শেষমেশ মমতা বন্দ্যাপাধ্যায়ের মুখেই হাসি ফুটলেও, তা দীর্ঘস্থায়ী হয় কিনা বলবে সময়।
গত বছর ডিসেম্বরের মাঝামাঝি বিজেপি-তে যোগ দেন শুভেন্দু। তার পর লাগাতার মমতা ও তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আক্রমণ চালিয়ে যান একদা মমতার বিশ্বস্ত সেনানী শুভেন্দু অধিকারী।

১০ মার্চ আনুষ্ঠানিক ভাবে নন্দীগ্রামের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন মমতা। ওই দিনই নন্দীগ্রামে আক্রান্ত হন মমতা। পায়ে আঘাত পান। তা নিয়ে তৃণমূল এবং বিজেপি-র মধ্যে তরজা চরমে ওঠে। ১২ মার্চ নন্দীগ্রাম থেকে বিজেপি-র হয়ে মনোনয়ন জমা দেন শুভেন্দু। তিনি সর্বদা দাবি করেছেন, নন্দীগ্রামে মমতাকে বিপুল ব্যবধানে হারাবেন তিনি।

মমতাকে শুভেচ্ছা রাজনাথের, অভিনন্দন নির্মলার। পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে জয়ের জন্য মমতাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। রাজনাথ সিং শুভেচ্ছা-বার্তায় জানিয়েছেন, “পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তাঁর দলের বিপুল জয়ের জন্য অভিনন্দন। তাঁর পরবর্তী রাজনৈতিক জীবনের জন্য আমার শুভেচ্ছা’। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ টুইট করে শুভেচ্ছা-বার্তায় লিখেছেন, “আরও একবার বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ করার জন্য মমতা দিদি এবং তৃণমূলকে শুভেচ্ছা। আপনাকে আপনার সরকারের পরবর্তী মেয়াদের জন্য শুভকামনা জানাই।”

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.