মানিকচকে এক ছাত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার কে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ মালদাঃ এক ছাত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার মালদা জেলার মানিকচকে। মৃত ছাত্রীর নাম কাবেরী মন্ডল (১৮)। কাবেরী মানিকচক কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। কাবেরীর বাড়ি মানিকচকের নাজিরপুর অঞ্চলের হরিপুরে। আজ সকালে গ্রামের পাশেই একটি আম গাছে তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায় গ্রামবাসীরা। মৃত কাবেরী কে সিঁদুর পরিহিত অবস্থায় পাওয়া যায় বলে সন্দেহ দানা বাঁধে।

কাবেরীর বাড়ির লোকজনের অভিযোগ তাকে হত্যা করে আম গাছে টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছে। আর অভিযোগের তীর ওই গ্রামেরই যুবক অমিত মন্ডলের দিকে। জানা গেছে কাবেরীর সাথে অমিতের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। অমিত কাবেরীর প্রেমের সম্পর্ক প্রায় দেড় বছরের। তারা বিয়েও করতে চেয়েছিল। অমিত কাবেরীর সম্পর্ক কাবেরীর বাড়ির লোকজন মেনে নিলেও তাদের বিয়েতে ঘোর অমত ছিল অমিতের বাবা-মায়ের। তারা এই সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য গতকাল ছিল কাবেরীর জন্মদিন। মা-বাবার বারণ সত্ত্বেও বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে জন্মদিন পালন করবে বলে বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু আর বাড়ি ফেরেনি কাবেরী। রাতে হয়তো পাশের গ্রামে মাসির বাড়িতে আছে বলে নিশ্চিন্ত ছিলেন কাবেরীর বাড়ির লোকজন। কাবেরীর মাথার সিঁদুর দেখে গ্রামবাসীদের অনুমান হয়তো গতকাল রাতে অমিত ও কাবেরী বিয়ে করে। তারপর কি ঘটনা ঘটে সেটাই রহস্য। তবে ঘটনার চাউর হওয়ার পর থেকেই অমিত নিরুদ্দেশ। তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নিয়ে ধন্দে মানিকচক থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.