ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী! প্রথমবার জিতেই মন্ত্রিসভায় জায়গা করে নিলেন মনোজ তিওয়ারি

ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী! প্রথমবার জিতেই মন্ত্রিসভায় জায়গা করে নিলেন মনোজ তিওয়ারি
ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী! প্রথমবার জিতেই মন্ত্রিসভায় জায়গা করে নিলেন মনোজ তিওয়ারি/image courtecy: twitter post by @tiwarymanoj

এই প্রথম রাজনীতিতে যোগ দিয়েই বিধানসভা নির্বাচনে জিতেছেন বিপুল ভোটে। ৩২,৩৩৯ ভোটে পরাস্ত করেছেন অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ রথীন চক্রবর্তী কে। আর তারপরেই জায়গা করে নিলেন মন্ত্রিসভায়। আজ ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিতে পারেন তৃণমূলের হাওড়া শিবপুরের জয়ী প্রার্থী মনোজ তিওয়ারি।

নির্বাচনের আগেই মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিয়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন লক্ষ্মীরতন শুক্ল। যদিও বিজেপিতে যোগদান করেননি তিনি। রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন বলে জানিয়েছেন। তাঁর জায়গাতেই এবারের নির্বাচনে আরও এক ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারিকে টিকিট দিয়েছিল দল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই ভরসা রেখে নির্বাচনে জিতে বেরিয়ে এসেছেন তিনি। এই পুরস্কার হিসেবে এবার মন্ত্রিসভায় আসন করে নিলেন বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক। আজ সোমবার সকালে রাজভবনের শপথ নিতে চলেছেন তিনি প্রতিমন্ত্রী হিসেবে।

নতুন দায়িত্বের কথা জানতে পেরে মনোজ বলেন, “আমরা সকলেই দিদির অনুগামী। তিনি যেভাবে বলবেন সেভাবেই কাজ করব। কিসের জন্য কাজ করতে হবে”। ডিজে শপথ গ্রহণের পর এই করোনা মোকাবিলা করতে পথে নেমে পড়েছেন তিনি। টুইটারে ছবি পোস্ট করে নিজেই জানিয়েছেন সেই কথা। সেখানে তিনি লিখেছেন, “কিছু মুহূর্ত ছবির চেয়ে দামী। এই শপথের অঙ্গীকার পাশে থাকার প্রতিজ্ঞা। এইসব পথের অঙ্গীকার আমার বাংলার ঐতিহ্য, ঐক্য, কৃষ্টিকে আগলে রাখার প্রতিজ্ঞা, জয় বাংলা।”

তবে এদিন ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ দফতরের পূর্ণমন্ত্রী কে হতে পারেন তা নিয়ে জল্পনা রয়েছে। যদিও মনে করা হচ্ছে অরূপ বিশ্বাসকেই সেই দায়িত্ব দিতে পারেন দলনেত্রী। ফুটবলার বিদেশ বসু নির্বাচনে জেতার পর তার নাম নিয়ে জল্পনা শুরু হলেও পরে দেখা যায় মন্ত্রীর তালিকায় তার নাম নেই।