ভুয়ো ভ্যাকসিনের শিকার হয়ে মুখ খুললেন মিমি চক্রবর্তী! কী বার্তা দিলেন তিনি?

ভুয়ো ভ্যাকসিনের শিকার হয়ে মুখ খুললেন মিমি চক্রবর্তী! কী বার্তা দিলেন তিনি?
ভুয়ো ভ্যাকসিনের শিকার হয়ে মুখ খুললেন মিমি চক্রবর্তী! কী বার্তা দিলেন তিনি?

সম্প্রতি ভ্যাকসিন জালিয়াতির শিকার হলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। মঙ্গলবার কসবার একটি ক্যাম্প থেকে কোভিড ভ্যাকসিন নেন মিমি। কিন্তু তারপর ফোনে কোনও রেজিস্ট্রেশন নম্বর বা সার্টিফিকেট আসেনি। সন্দেহ জাগায় অভিনেত্রী পুলিশে খবর দিলেই ধরা পড়ে জালিয়াতির কথা। মিমির উদ্যোগে ইতিমধ্যে ভ্যাকসিন ক্যাম্পের আয়োজক দেবাঞ্জন দেবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরপর সকলের উদ্দেশ্যে মুখ খুললেন তৃণমূল সাংসদ। কী বার্তা দিলেন তিনি?

বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে মিমি জানান, “গতকালের ঘটনার পর অনেকে আমার খোঁজ নিয়েছেন। আমার কাছে অনেক ফোন, মেসেজ এসেছে। তাঁদের জানাতে চাই আমি ভালো আছি। যারা আমার সঙ্গে ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন তাঁদের বলছি, ভয় পাবেন না, আমি সুস্থ আছি মানে আশা করি আপনারাও সুস্থ আছেন। ওই ভ্যাকসিনের নমুনা ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। ৪-৫ দিনের মধ্যেই জেনে যাব, ওতে ঠিক কী ছিল? তবে যতটুকু কথা বলে জেনেছি ওতে ক্ষতিকারক কিছু ছিল না, তবে হ্যাঁ, এ কথা ঠিক ওগুলো ভ্যাকসিন নয়।”

পাশাপাশি মিমি আরও বলেন, “শুধু গতকালের ক্যাম্পই নয়, দেবাঞ্জন নামে ওই লোকটি এর আগেও অনেকগুলো ক্যাম্প করেছেন। যাঁরা ওর ক্যাম্প থেকে ভ্যাকসিন নিয়েছেন, তাঁদের বলব, এর পরে কী করবেন তা জানতে KMC-র দফতরে যান, স্থানীয় কাউন্সিলরের সঙ্গে কথা বলুন। স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন হন। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর ফোনে মেসেজ আসছে কিনা খেয়াল রাখুম। অনেক সময় কিন্তু মেসেজ আসতে দেরি হলেও ক্যাম্প থেকে একটা সার্টিফিকেট দেওয়া হচ্ছে। কাল আমি যেটা পাইনি, তারপরই সন্দেহ হয়। ফলে জালিয়াতি চক্রটি ধরা পড়ে। গতকালের ঘটনার যেন না আবার না ঘটে। দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি প্রশাসন ও সাংবাদিক বন্ধুদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।”

ইতিমধ্যেই ওই ক্যাম্প থেকে বহু মানুষ ভ্যাকসিন নিয়েছেন। তিনি টিকা নিলে অনেকে আগ্রহী হবে তা ভেবেই ওই ক্যাম্পে ভ্যাকসিন নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মিমিও। তারপর ধরা পড়ে জালিয়াতির কথা। তবে ওই ক্যাম্প থেকে যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন, তাঁদের ভয় না পেয়ে নিজেদের শরীরের যত্ন নিতে বলেছেন মিমি। পাশাপাশি এরপর থেকে ভ্যাকসিন নেওয়ার পর সার্টিফিকেট পাচ্ছেন কিনা তা অবশ্যই দেখে নেওয়ার অনুরোধও জানিয়েছেন তৃনমূল সাংসদ।