ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১

ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১
ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১

বৃহস্পতিবারই ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনার সাক্ষী রইল শহর কলকাতা। রেড রোডে ফোর্ট উইলিয়ামের কাছেই ঘটল এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে একটি বাইক আরোহীকে ধাক্কা মারে একটি মিনি বাস। তারপর রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মারে বাসটি। বাসের নিচে আটকে যান ওই বাইক আরোহী। তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও আহত হয়েছেন বেশ কিছু জন।

ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১
ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১

জানা গিয়েছে, মিনিবাসটি মেটিয়াবুরুজ থেকে হাওড়ার দিকে আসছিল। রেড রোডে ফোর্ট উইলিয়ামের সামনে আইল্যান্ড দিয়ে পার্ক স্ট্রিটের দিকে ঘোরার সময় হঠাৎ ব্রেক ফেল করে বাসটি। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ডিভাইডারে গিয়ে ধাক্কা মারে। তখনই বাসের সামনে চলে আসেন ওই বাইক আরোহী। তাঁকেও ধাক্কা মারে বাসটি। বাইক সমেতই বাসের নীচে আটকে যান আরোহীটি। ওই অবস্থাতেই রেলিং ভেঙে গিয়ে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে গিয়ে ধাক্কা মারে বাসটি। পাঁচিল ভেঙে ভিতরের সংরক্ষিত এলাকায় বাসের কিছু অংশও ঢুকে যায়।

এরপরই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন আশেপাশে উপস্থিত জনতা। হাজির হয় পুলিশও। বাসের মধ্যে একাধিক যাত্রী ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। ক্রেনের সাহায্যে বাসটিকে বের করে একে একে তাঁদের উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় জনতারাও উদ্ধারকার্যে হাত লাগান। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বাসটিতে প্রায় ৩০ জন আরোহী উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের বেশিরভাগ জনই আহত। তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বাসের নীচে আটকে যাওয়া বাইক আরোহীকেও উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।

ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১
ভয়াবহ দুর্ঘটনা রেড রোডে! রেলিং ভেঙে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে ধাক্কা মিনি বাসের, মৃত ১

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছান কলকাতার পুলিস কমিশনার সৌমেন মিত্র। তিনিই জানান, ওই বাইক আরোহীটি মারা গিয়েছেন। পাশাপাশি ঘটনার উপযুক্ত তদন্ত হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। চালকের ভূমিকাও খতিয়ে দেখা হবে। পুলিশের অনুমান, বাসটির সম্ভবত ব্রেক ফেল করেছিল। বাসটির বেশিরভাগ যাত্রীর সঙ্গে চালকও আহত হয়েছেন বলে খবর। আপাতত আহতদের সকলেরই SSKM হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।