মৃত যুবকের সঙ্গে জোর করে বিয়ে নাবালিকা! চাঞ্চল্য বর্ধমান শহরে

মৃত যুবকের সঙ্গে জোর করে বিয়ে নাবালিকার! চাঞ্চল্য বর্ধমান শহরে
মৃত যুবকের সঙ্গে জোর করে বিয়ে নাবালিকার! চাঞ্চল্য বর্ধমান শহরে

মৃত কিশোরের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হলো এক অপ্রাপ্তবয়স্ক নাবালিকার। এই ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বর্ধমান লক্ষীপুর মাঠ কাঁটাপুকুর এলাকায়। ইতিমধ্যে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই নাবালিকার পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বেশ কয়েক মাস আগেই বর্ধমান লক্ষ্মীপুর মাঠ কাঁটাপুকুর এলাকার বাসিন্দা এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক হয় কেষ্টপুর বাগানবাড়ি এলাকার বছর ১৫-এর এক নাবালিকার। এরমধ্যে বেশ কয়েকবার ওই নাবালিকাকে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করার জন্য প্রস্তাব দেন ওই যুবক। কিন্তু সেই প্রস্তাবে রাজি হয়নি নাবালিকা। এরপর দিন কয়েক আগে ওই কিশোরের বাড়ির লোক নাবালিকার বাড়িতে গিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু সেই প্রস্তাবে রাজি হয়নি নাবালিকার পরিবার। পরিবারের তরফে জানানো হয়, তাদের মেয়ে যেহেতু নাবালিকা তাই এখন তারা বিয়ে দেবেন না।

এরপরে গতকাল রাতে ফের একবার মেয়েটিকে দেখা করার কথা বলে ওই যুবক। সেই প্রস্তাব নাকচ করে দেয় নাবালিকা। আর ঠিক তখনই ভিডিও কল করেই সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় কাপড় জড়িয়ে আত্মহত্যা করে যুবক । এদিকে মৃতের বাড়ির লোক এই ঘটনার জেরে ওই নাবালিকা এবং তার মাকে নিজেদের বাড়িতে ডেকে এনে মারধর করে। একই সঙ্গে মৃত যুবকের পা দিয়ে ওই নাবালিকাকে সিঁদুর পড়ানো হয়। এরপর শাঁখা-সিঁদুর ভেঙে ফের মারধর করা হয় ওই নাবালিকাকে।

এ ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওই এলাকায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এরপরে ওই নাবালিকা এবং তার মাকে উদ্ধার করে পুলিশ। পাশাপাশি থানায় গিয়ে অভিযোগ জানাতেও বলা হয়। গোটা ঘটনার শুনে আসলে কি কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে তদন্তকারী দল।