করোনা আক্রান্ত ইয়ে রিস্তা কেয়া ক্যাহেলাতা হ্যায় এর অভিনেত্রী, কেঁদে ফেললেন বন্ধুর ভিডিয়ো কলে

করোনা আক্রান্ত ইয়ে রিস্তা কেয়া ক্যাহেলাতা হ্যায় এর অভিনেত্রী, কেঁদে ফেললেন বন্ধুর ভিডিয়ো কলে

করোনা থেকে রেহাই পেলেন না অভিনেত্রী মোহেনা কুমারী। ‘ইয়ে রিস্তা কেয়া ক্যাহেলাতা হ্যায়’ টেলিভিশন ধারাবাহিকের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী এবং তার স্বামী সুরেশ রাওয়াত এই মুহূর্তে দুজনেই ঋষিকেশের একটি হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন রয়েছেন। করনা আক্রান্ত হওয়ার পর একটি ভিডিয়োতে কেঁদেও ফেলতে দেখা গিয়েছে এই অভিনেত্রীকে।

জানা গিয়েছে যে শুধু মোহেনা কুমারী ও তার স্বামীই নন বরং তার শ্বশুর উত্তরাখন্ডের পর্যটন মন্ত্রী সুরেশ সতপাল এবং শাশুড়িও কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। ইনস্টাগ্রামে লাইভ ভিডিয়োতে এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী বলেন, “আমার শাশুড়িমা প্রথমে অসুস্থ বোধ করেন। তারপর আমিও অসুস্থ বোধ করি, শরীরে প্রচন্ড ব্যাথা শুরু হয়। কিন্তু আমার রিপোর্ট প্রথমে নেগেটিভ আসায় আমি বুঝতে পারিনি। ওষুধ খেয়েও যখন শাশুড়িমায়ের জ্বর না কমে, তখন আবারো টেস্ট করানো হয়। সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর বাড়ির একের পর এক সদস্যের টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ আসে। খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। তবে, শারীরিক কষ্টের চেয়েও মানসিক কষ্ট অনেক বেশি। আমি তাই বলতে চাই যে অসুস্থ বোধ করলে টেস্ট করান। এটা খুব একটা মারাত্মক কিছু নয়”।

ওই লাইভে মোহেনা আরো জানান যে, “ ইতিমধ্যেই আমি হাসপাতালে ৬দিন কাটিয়ে ফেলেছি। এখনো আমি করোনা মুক্ত হইনি। আমার স্বামী এবং ভাইপোর জন্য চিন্তা হচ্ছে। ভারতীয়রা সবসময়ই একটা পুষ্টিকর ভালো খাবার খায়। আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা থাকলে করোনার সঙ্গে লড়াই করা যায়।” করোনা নিয়ে ভিত্তিহীন তথ্য এবং গুজবে কান না দেওয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। এই অভিনেত্রী নিজের বন্ধুবান্ধব, শুভাকাঙ্খী এবং ফ্যানেদের অনুরোধ করেছেন তার এবং তার পরিবারের জন্য প্রার্থনা করতে। ওই লাইভ চলাকালীনই ওই লাইভে অভিনেত্রীর বন্ধু গৌরব ওয়াধওয়া যখন যোগ দিয়ে কথা বলা শুরু করেন তখন আর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি মোহেনা, কান্নায় ভেঙে পড়েন। জানা গিয়েছে করোনা আক্রান্ত হওয়ায় এই অভিনেত্রী কোনো খাবারেরই স্বাদ এবং গন্ধ বুঝতে পারছেন না ফলে এই মুহূর্তে তিনি শুধু কাঁচা হলুদ আর ফলের উপরই জীবন কাটাচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ  ভক্তের চোখে সুপার উওম্যান পরিণীতি, ইন্সটায় নিজেই দিলেন সেইসব পোস্টার...

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.