স্বস্তির খবর! রাজ্যের দৈনিক করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১১ হাজারের কম, নিম্নমুখী মৃত্যুর সংখ্যাও

স্বস্তির খবর! রাজ্যের দৈনিক করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১১ হাজারের কম, নিম্নমুখী মৃত্যুর সংখ্যাও
স্বস্তির খবর! রাজ্যের দৈনিক করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১১ হাজারের কম, নিম্নমুখী মৃত্যুর সংখ্যাও / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ধীর গতিতে হলেও কমছে রাজ্যে দৈনিক করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা। সামান্য হলেও রাজ্যে নিয়ন্ত্রণে মারণ করোনা। দীর্ঘদিন পরে, রাজ্যে দৈনিক করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা নামল ১১ হাজারের নীচে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ১৩৭ জন। আক্রান্তের সংখ্যার পাশাপাশি কমেছে মৃত্যুর সংখ্যাও। যা এই মুহূর্তে বড় স্বস্তির খবর।

আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে প্রথম স্থানের রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২,৩৭৬ জন। স্বস্তির খবর, এদিনও এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজারের নীচে। এরপর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন ১,৩২৪ জন। উল্লেখ্য, গতকালের থেকে অনেকটা কমেছে কলকাতার সংক্রমণও।

এদিকে আরও স্বস্তির খবর, দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের করোনা সংক্রমণও নিম্নমুখী। কিন্তু এদিনও প্রায় সব জেলা থেকেই এসেছে নতুন সংক্রমণের খবর। এই মুহূর্তে রাজ্যের মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৩,৭৬,৩৭৭।

অন্যদিকে, রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৩১ জনের। এই সংখ্যাটাও আগের দিনের তুলনায় সামান্য কম। দৈনিক মৃতের সংখ্যার নিরিখেও প্রথম স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৩৩ জন। তবে, এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা কমার পাশাপাশি এদিন মৃতের সংখ্যাও সামান্য কমেছে, আগের দিনের তুলনায়। আর একদিনে কলকাতায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ২৮ জন। এখনও পর্যন্ত করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৫, ৫৪১।

একদিনে করোনাকে হারিয়ে ঘরে ফিরেছেন ১৭, ৮৫৬ জন। এদের মধ্যে ৩,৩৬৩ জনই উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বাসিন্দা। উত্তর ২৪ পরগণার দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় বেশ খানিকটা বেশি। এটা অবশ্যই আশার খবর। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ১২,৭৩,৭৮৮। উল্লেখ্য, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৯২. ৫৫ শতাংশ। একদিনে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৫৮, ৫৮৩ জনের।