কুড়ি বছর পর আবার ভোটের লড়াই, আজ মুকুল যাবেন মনোনয়ন পেশ করতে

কুড়ি বছর পর আবার ভোটের লড়াই, আজ মুকুল যাবেন মনোনয়ন পেশ করতে
কুড়ি বছর পর আবার ভোটের লড়াই, আজ মুকুল যাবেন মনোনয়ন পেশ করতে

কুড়ি বছর পর ফের বিধানসভা নির্বাচনে লড়ছেন মুকুল রায়। আজ দুপুরে মনোনয়ন পেশ করবেন তিনি। এদিন এলাকার এক মন্দিরে পুজো দিয়ে মনোনয়ন পেশ করার কথা রয়েছে তাঁর।

বিজেপি প্রার্থী হিসেবে কৃষ্ণনগর উত্তর থেকে তাঁর নাম ঘোষণা হতেই তৎপর হয়েছিলেন তিনি। সেই রাতেই নদিয়া পৌঁছে যান এই দুঁদে রাজনীতি বিদ। তাঁর মত ব্যক্তিত্বকে হেভিওয়েট বলা টাই স্বাভাবিক। তবে এই বিশেষণ মানতে নারাজ তিনি। তাঁর কথায়, “হেভিওয়েট কিছুই নয়। সাধারণ প্রার্থী হয়েই লড়ব। জিতব।”

কৃষ্ণনগর উত্তর থেকে তৃণমূল দাঁড় করিয়েছে কৌশানিকে। এই পরিপক্ক রাজনীতিবিদের কাছে নবাগত কৌশানি যে খুব একটা ভারী মুখ নয় তা বলাই বাহুল্য। এদিকে যে মুকুল এতদিন অন্যের জন্য ভোট চেয়ে এসেছেন, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তাঁকে নিজের জন্য ভোট চাইতে হবে।

আজ তাঁর মনোনয়ন পেশ করতে যাওয়ার আগে রোড শো তে দেখা যেতে পারে কেন্দ্রীয় বস্ত্র মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ও বিজেপির রাজ্য পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয় বর্গীয় কে। এদিকে এখনও সেইভাবে আনুষ্ঠানিক প্রচারেও নামেননি তিনি। আজকের পর থেকে প্রচারেও দেখা মিলতে পারে এই চাণক্যের।

বছর কুড়ি পর তাঁকে ফের ভোট যুদ্ধে লড়াই করতে দেখে বেশ উৎসাহী তাঁর অনুগামীরা। পাশাপাশি একই ভাবে উত্তেজনায় ফুটছেন প্রার্থী নিজেও। এই প্রসঙ্গে মুকুল বাবু বলেন, “একেবারে নতুন অনুভূতি। কুড়ি বছর পর ভোট ভিক্ষা করব। তবে আশা করছি মানুষকে পাশে পাব। গোটা রাজ্যজুড়ে আমার কর্মী-সমর্থকরা রয়েছেন। দল আমাকে যা দায়িত্ব দিয়েছে, আমি নিষ্ঠার সঙ্গে সেটা পালন করব।” একইসঙ্গে, কৃষ্ণনগরের সার্বিক উন্নয়নই তাঁর মূল লক্ষ্য বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.