যশের তাণ্ডবে বড়সড় ক্ষতি এড়াতে বাতিল হল একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন

যশের তাণ্ডবে বড়সড় ক্ষতি এড়াতে বাতিল হল একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন
যশের তাণ্ডবে বড়সড় ক্ষতি এড়াতে বাতিল হল একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন/ প্রতীকী ছবি

ঘূর্ণিঝড় যশের জন্য আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে বিভিন্ন মহল। এবার ফের একবার এই ঝড়ের কারণে বাতিল হল বেশ কিছু দূরপাল্লার ট্রেন। দক্ষিণ পূর্ব রেল এবং ইস্ট কোস্ট রেলের তরফে একাধিক রেল বাতিল করার কথা জানানো হয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী ২৪ থেকে ২৭ মের মধ্যেই এই ঘূর্ণিঝড় সংগঠিত হবে। এর ল্যান্ডফল হবে ২৬ মে। ঘন্টায় ১৫৫-১৬৫ কিমি বেগে ঝড় বইতে পারে বলেও সতর্ক করেছে হাওয়া অফিস। সেই কারণেই বড়সড় ক্ষতি এড়াতে প্রথম দফায় ৭৮টি ও পরের দফায় ৪১টি দূরপাল্লার ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। ২৫ তারিখ থেকে ২৭ মে পর্যন্ত বাতিল থাকবে ট্রেনগুলো। অন্যদিকে বেশ কিছু ট্রেনকে সোমবার থেকেই বাতিল করা হয়েছে।

দক্ষিণ পূর্ব রেল যে সমস্ত ট্রেন বাতিল করেছে তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ট্রেনের তালিকা

হাওড়া ভুবনেশ্বর বাতিল ২৫-২৭ মে
হাওড়া পুরি বাতিল ২৫-২৭ মে
হাওড়া যশবন্তপুর বাতিল২৫ ও ২৬ মে
হাওড়া কন্যাকুমারী – ২৪ মে বাতিল
হাওড়া সেকেন্দ্রাবাদ – ২৪-২৬ মে
হাওড়া চেন্নাই – বাতিল ২৪-২৬ মে
হাওড়া তিরুচিরাপল্লী – বাতিল ২৫ মে
হাওড়া পুডুচেরি – বাতিল ২৬ মে
হাওড়া হায়দ্রাবাদ – বাতিল ২৫-২৭ মে
হাওড়া ভাস্কোদাগামা – বাতিল ২৫ এবং ২৭ মে
হাওড়া মহীশূর – বাতিল ২৮ মে
হাওড়ায় এর্নাকুলাম – বাকিল ২৯ মে
হাওড়া আমেদাবাদ – বাতিল ২৫ ও ২৬ মে
হাওড়া মুম্বাই ছত্রপতি শিবাজী টার্মিনাস- বাতিল ২৫,২৬ মে
হাওড়া রাঁচী – বাতিল ২৫,২৬ মে
শালিমার গোরখপুর – বাতিল ২৪ মে
শালিমার পাটনা – বাতিল ২৪ এবং ২৬ মে
হাওড়া চক্রধরপুর – বাতিল ২৬ থেকে ২৭ মে

অন্যদিকে সাইক্লোন জশের জন্য প্রস্তুতি শুরু করেছে কলকাতা বিমানবন্দর। বিমানবন্দর কতৃপক্ষ প্রত্যেক বিমান সংস্থাকে জানিয়ে দিয়েছে যে ঝড় মোকাবিলা করার জন্য সমস্ত সরঞ্জাম যেনো তৈরি রাখে। বিমানের চাকা বদলানো বা বিমান গুলিকে কোনো ভারী জিনিসের সাথে বেঁধে রাখার সরঞ্জাম নিয়ে তৈরি সমস্ত সংস্থা।

পাশাপাশি প্রতিমুহূর্তে হাওয়া অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ আগামী ২৬মে মঙ্গলবার কোন সময় কলকাতায় প্রবেশ করছে এই ঘূর্ণিঝড়, সেইমতো বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে ঐদিন কোন সময় থেকে কোন সময় পর্যন্ত বিমান চলাচল বন্ধ রাখা হবে। পাশাপাশি ২৬ তারিখের আগে পর্যন্ত বিমান চলাচল স্বাভাবিক থাকবে বলে জানিয়েছে বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ।