হাঁটু পর্যন্ত লম্বা ১ কেজি ওজনের মঙ্গলসূত্র উপহার স্ত্রীকে! ছবি ভাইরাল হতেই থানায় ডাক পড়ল স্বামীর

হাঁটু পর্যন্ত লম্বা ১ কেজি ওজনের মঙ্গলসূত্র উপহার স্ত্রীকে! ছবি ভাইরাল হতেই থানায় ডাক পড়ল স্বামীর
হাঁটু পর্যন্ত লম্বা ১ কেজি ওজনের মঙ্গলসূত্র উপহার স্ত্রীকে! ছবি ভাইরাল হতেই থানায় ডাক পড়ল স্বামীর

হাঁটু পর্যন্ত লম্বা মঙ্গলসূত্র। ওজন প্রায় ১ কিলোগ্রাম৷ একঝলক দেখলে মনে হবে খাঁটি সোনা দিয়ে তৈরি! সম্প্রতি মুম্বইয়ের ভিওয়ান্ডির বাসিন্দা এক ব্যক্তি নিজের স্ত্রীকে উপহার দিলেন সেই মঙ্গলসূত্র। আর তা গলায় পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও দিতেই বিপত্তি। স্বামীকে থানায় ধরে নিয়ে গেল পুলিশ।

জানা গিয়েছে, গয়না সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যই থানা ডাকা হয়েছিল মহিলার স্বামী বালা নামে ব্যক্তিটিকে। কারণ এই ধরনের ‘দামী’ গয়না পরে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করলে, দম্পতিটি নানা রকমের বিপদের সম্মুখীন হতে পারেন। সেই প্রসঙ্গে সতর্ক করতেই পুলিশ ডাকেন বালাকে। তবে তিনি এসে যা উত্তর দিলেন তা শুনেই বোকা বনে গেল পুলিশ।

বালা জানিয়েছেন, হাঁটু পর্যন্ত লম্বা এক কেজির ওই মঙ্গলসূত্রের দাম ‘মাত্র’ ৩৮ হাজার টাকা। অর্থাৎ সোনা দিয়ে ওই মঙ্গলসূত্র তৈরি হয়নি। সেটি আসলে ইমিটেশনের। ৩৮ হাজার টাকার বিনিময়ে মুম্বইয়ের এক দোকান থেকে তা কিনে স্ত্রীকে উপহার দেন ওই ব্যক্তি। তা পরেই সোশ্যাল মিডিয়ার সামনে আসেন ওই মহিলা। এরপর যে দোকান থেকে এই মঙ্গলসূত্র কেনা হয়েছিল পুলিশকে তার ঠিকানাও দেন ওই ব্যক্তি। সব শুনে আশস্ত হয়ে তাঁকে ছেড়ে দেন পুলিশ।

অবশ্য, এরপর ওই দোকানে গিয়ে ঘটনার সত্যতাও যাচাই করে পুলিশ। জানা যায়, মঙ্গলসূত্রটি সত্যিই ইমিটেশনের তৈরি। এই প্রসঙ্গে পুলিশ জানিয়েছে, এভাবে গয়না পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা মানেই তা অপরাধীদের আমন্ত্রণ জানানো। তাই ওই দম্পতিটির বিপদের সম্ভাবনা ছিল। তাই তাঁদের সতর্ক করতেই ডাকা হয়েছিল ওই ব্যক্তিকে। পাশাপাশি, জনসাধারণের উদ্দেশ্যে এভাবে গয়না পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় তা প্রকাশ না করার আর্জিও জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে।