প্রথম দফার ভোটের আগে আজ ফের রাজ্যে মোদী, পুরুলিয়ায় নির্বাচনী সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রথম দফার ভোটের আগে আজ ফের রাজ্যে মোদী, পুরুলিয়ায় নির্বাচনী সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী
প্রথম দফার ভোটের আগে আজ ফের রাজ্যে মোদী, পুরুলিয়ায় নির্বাচনী সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী / ছবি সৌজন্যে- Screengrab from Facebook Video Posted By @narendramodi

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এবারের বাংলার বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ৮ দফায়। রাজ্যে প্রথম দফার ভোট শুরু হচ্ছে ২৭ মার্চ। এই আবহে আজ ফের রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ইঙ্গিত আগেই ছিল দলীয় সূত্রে।

২৭ মার্চ প্রথম দফাতেই ভোট হবে পুরুলিয়া জেলাজুড়ে। তার আগে এই জেলায় বৃহস্পতিবার বিধানসভা কেন্দ্র ভাঙড়ায় নির্বাচনী সভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নবকুঞ্জের মাঠে হবে এই জনসভা। যার শেষ বেলার প্রস্তুতি এখন তুঙ্গে।

জানা গিয়েছে যে, চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি হুটমুড়ার যে ফুটবল মাঠে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সভা করেছিলেন, সেই মাঠে নামবে প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার। মোদির এই সভার ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছেন পাশের রাজ্য ঝাড়খণ্ডের কোডার্মা লোকসভা কেন্দ্রের প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ রবীন্দ্রকুমার রায় এবং পুরুলিয়ার সাংসদ জ্যোর্তিময় মাহাতো। উল্লেখ্য, এমনিতেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের বহিরাগত বলে বারবার আক্রমণ করা হচ্ছে। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে, পুরুলিয়ার জনসভায় একজন ভিন রাজ্যের নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া নিয়ে শুরু হয়ে গেছে রাজনৈতিক বিতর্ক।

উল্লেখ্য, গত সোমবার পুরুলিয়ায় জোড়া সভা করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দু-দিনের মধ্যেই এই জেলার মাটিতে নির্বাচনী প্রচারে আসছেন প্রধানমন্ত্রীও। ইতিমধ্যেই তৃণমূল প্রধানমন্ত্রীর এই সফর নিয়ে কটাক্ষ করে বলেছে যে, এমনই অবস্থা যে, বাইরে থেকে লোক আনতে হচ্ছে। পাশে রাজ্য থেকে লোক এনে সভা ভরাতে হচ্ছে। তৃণমূলের এই দাবি উড়িয়ে দিয়ে, প্রধানমন্ত্রী সভার দায়িত্বে থাকা পাশের রাজ্য ঝাড়খণ্ডের কোডার্মা লোকসভা কেন্দ্রের প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ রবীন্দ্রকুমার রায় জানিয়েছেন যে, পুরুলিয়ায় যারা শহিদ হয়েছেন, তাঁদের ৬ টি পরিবার সভায় উপস্থিত থাকবেন। সভায় যারা থাকবেন, তাঁরা সকলেই পুরুলিয়ার মানুষ। শুধুমাত্র কিছু কার্যকর্তার ঝাড়খণ্ড থেকে আসার কথা রয়েছে। এদিকে তৃণমূলের দাবি, এখানে মমতার জনসভায় যে পরিমাণ লোক হয়েছিল, মোদীর জনসভায় তার অর্ধেকও হবে না।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০২৯ এর লোকসভা ভোটে পুরুলিয়া কেন্দ্রে ক্ষমতা দখল করে বিজেপি। এর পাশাপাশি বিধানসভা ভিত্তিক রেজাল্ট অনুসারে, পুরুলিয়ার ৯ টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যেই ৮ টিতেই এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। শুধুমাত্র মানবাজারে এগিয়ে রয়েছে তৃণমূল। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ২০২১-এর বিধানসভা ভোটে পুরুলিয়ায় বিজেপির ক্ষমতা ধরে রাখা যেমন চ্যালেঞ্জ, তৃণমূলের কাছে ঠিক ততটাই গুরুত্বপূর্ণ এই পুরুলিয়া নিজেদের দখলে আনা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.