বলিউডে ফের শোকের ছায়া! হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুরেখা সিকরি

বলিউডে ফের শোকের ছায়া! হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুরেখা সিকরি
বলিউডে ফের শোকের ছায়া! হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুরেখা সিকরি

বিনোদন জগতে ফের নক্ষত্রপতন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত তিনবারের জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুরেখা সিকরি। শারীরিক অসুস্থতায় দীর্ঘদিন ভুগছিলেন। শুক্রবার ভোরেই মৃত্যু হয় বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫। অভিনেত্রীর মৃত্যুতে বলিউড জুড়ে নেমেছে শোকের ছায়া৷

জানা গিয়েছে, গত কয়েক মাস ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন অভিনেত্রী সুরেখা সিকরি। ২০২০ সালে তাঁর ব্রেন স্ট্রোক হয়েছিল। তারপর থেকেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর আগে ২০১৮ সালে একবার প্যারালিটিক স্ট্রোকও হয় তাঁর। এরপরই আজ মিলল এই দুসংবাদ। বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর মৃত্যুর খবর সংবাদ সংস্থাকে নিশ্চিত করেন তাঁর ম্যানেজার। পাশাপাশি অভিনেত্রীর পরিবার যে এই সময়ে গোপনীয়তা রাখার অনুরোধ করেছে একথাও জানান তিনি।

উত্তরপ্রদেশে জন্ম বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রী ১৯৭১ সালে ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা থেকে স্নাতক হন। ১৯৭৮ সালে ‘কিসসা কুর্সি কা’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে প্রথমবার পা রাখেন সুরেখা সিকরি। থিয়েটার জগৎ থেকে শুরু করে টেলি-সিরিয়াল এবং সিনেমাতে বহু কাজ করেছেন তিনি। ৩ বার জাতীয় পুরস্কারও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। ১৯৮৮ সালে ‘তমস’, ১৯৯৫ সালে ‘মাম্মো’ এবং ২০১৮ সালে ‘বাধাই হো’ ছবির জন্য সেরা সহ-অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কার জিতে নেন তিনি।

এছাড়াও টেলিভিশনে ‘বালিকা বধূ’ সিরিয়ালের মাধ্যমে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন সুরেখা সিকরি। সিরিয়ালে তাঁর চরিত্রটি প্রচুর মানুষের নজর কেড়েছিল। বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রীকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল জোয়া আখতার পরিচালিত নেটফ্লিক্সের অ্যান্থলজি ‘ঘোস্ট স্টোরিজ’-এ। তাঁর মৃত্যুতে যে বিনোদন জগতের অপূরনীয় ক্ষতি হল, তা বলাই বাহুল্য।