তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণের জন্য চাই তিন কোটি ভ্যাকসিন! কেন্দ্রকে চিঠি রাজ্যের

তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণের জন্য চাই তিন কোটি ভ্যাকসিন! কেন্দ্রকে চিঠি রাজ্যের
তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণের জন্য চাই তিন কোটি ভ্যাকসিন! কেন্দ্রকে চিঠি রাজ্যের

আরো কয়েক কোটি ভ্যাকসিন কিনবে রাজ্য একথা জানিয়ে আজই কেন্দ্রকে চিঠি লেখার কথা ছিল রাজ্য সরকারের। সেই মতই চিঠি লিখে আরও তিন কোটি ভ্যাকসিন চাইলো রাজ্য। পয়লা মে থেকে রাজ্যে যে তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণ শুরু হচ্ছে তার জন্য অগ্রিম ভ্যাকসিন মজুদ থাকা প্রয়োজন বলেই মনে করছে স্বাস্থ্য দফতর।

প্রত্যেকদিন বাংলায় বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এই পরিস্থিতিতে ভ্যাকসিনের সংকটে বিশৃঙ্খলা তৈরি হতে পারে রাজ্যে। সেই আশঙ্কায় কেন্দ্রকে চিঠি দিল রাজ্য এমনটাই জানা যাচ্ছে। তাই আগে থেকেই কেন্দ্রের কাছে রাজ্য সরকার আরও ৩ কোটি ভ্যাকসিন চাইল।

রাজ্য সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে রাজ্যে সরকারি হাসপাতাল এবং বেসরকারি হাসপাতাল থেকে যাতে ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব হয় তার জন্য অবিলম্বে তিন কোটি ভ্যাকসিন পাঠাতে হবে। জানা গেছে, সরকারি হাসপাতালগুলির জন্য ২ কোটির ডোজ় এবং বেসরকারি হাসপাতালগুলির জন্য ১ কোটির ডোজ় চাওয়া হয়েছে। এই বয়সী প্রায় দেড় কোটি মানুষের জন্য এই টিকা চেয়েছে রাজ্য।

অন্যদিকে, ৫০ লক্ষ মানুষকে বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ভ্যাকসিন দেওয়ার লক্ষমাত্রা নিয়েছে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি এদিনের চিঠিতে আরও জানানো হয়েছে ৪৫ বছরের উর্দ্ধে বিনামূল্যে ভ্যাকসিনের জন্য কেন্দ্র যেরকম ভ্যাকসিন পাঠাচ্ছে তা যেন অব্যাহত রাখে।

স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে খবর, রাজ্যে ভ্যাকসিনের ডোজ আসা মাত্রই সেগুলি সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ৫ মে থেকে শুরু হবে রাজ্যে তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণ। তবে সে ক্ষেত্রে প্রথম পর্যায় বিনামূল্যে ভ্যাকসিন কেবলমাত্র সরকারি হাসপাতাল থেকেই মিলবে। বেসরকারী হাসপাতাল থেকে ভ্যাকসিন নিতে গেলে ন্যায্য দাম দিয়ে সেই টিকা নিতে হবে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.