“আগে কখনো এত শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দেয়নি”: মিঠুন চক্রবর্তী

"আগে কখনো এত শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দেয়নি": মিঠুন চক্রবর্তী

একুশের নির্বাচনের শেষ দফায় সকাল সকাল ভোট দিলেন সদ্য বিজেপিতে যোগদানকারী মিঠুন চক্রবর্তী। কাশীপুর-বেলগাছিয়ার ২৪৭ নম্বর বুথে শুভক্ষণ বিয়ে বাড়িতে ভোট দেন মহাগুরু। ভোট দিয়ে বেরিয়ে মিঠুন বলেন, “এরকম শান্তিপূর্ণ ভোট আগে হয়নি”।

এদিন সকাল সকাল ভোট দিয়ে বেরিয়ে মিঠুন জানান, “আমি আগে কখনও এত শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিইনি। এই শান্তিতে ভোট দেওয়ার জন্য সমস্ত নিরাপত্তা কর্মীদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। ভোট দিয়ে আমার ভাল লেগেছে”।

প্রসঙ্গত, মিঠুন চক্রবর্তী বরাবরই উত্তর কলকাতার মানুষ বলেই পরিচিত। তাই উত্তর কলকাতার ভোট কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন তিনি। তবে এবার প্রথম বাংলায় ভোট দিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। কাশিপুর বেলগাছিয়া অঞ্চলে মিঠুন চক্রবর্তীর এক বোনের বাড়ি রয়েছে। সম্প্রতি এই ঠিকানাতেই তাঁর ভোটার কার্ড তৈরি করেন মিঠুন চক্রবর্তী।

একসময় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে টিকিট পেয়ে জয়ী হয়ে রাজ্যসভার সাংসদ ছিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। তবে তারপর দীর্ঘদিন রাজনীতির সঙ্গে সম্পর্ক ছিল না তাঁর। কিন্তু একুশের নির্বাচনের আগে তিনি গেরুয়া শিবিরে যোগ দেন। একাধিক সভা–সমাবেশে তিনি অংশগ্রহণ করেন। জল্পনা উঠেছিল হয়ত তিনি একুশের নির্বাচনে প্রার্থী হবেন। কিন্তু পরে প্রার্থী না হলেও পদ্মশিবিরের একাধিক প্রার্থীর হয়ে রোড–শো থেকে জনসভা করেছেন। এমনকী করোনা পরিস্থিতিতে বড় জমায়েত করে নির্বাচন কমিশনের নজরেও পড়েছিলেন।

উল্লেখ্য, কমিশন সূত্রে খবর, শেষ দফার ভোটপর্ব তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকছেন ২৪ জন জেনারেল পর্যবেক্ষক, ৯ জন ব্যয় সংক্রান্ত বিষয়ক পর্যবেক্ষক এবং ৯জন পুলিশ পর্যবেক্ষক।

শেষ দফার ভোটের জন্য মোট ৬০ হাজার ২৪০ কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। তার মধ্যে বুথে থাকবে ৫১ হাজার ২৮০ কেন্দ্রীয় বাহিনী।