জোর করে হিন্দি এবং সংস্কৃত চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে, নতুন শিক্ষা নীতি নিয়ে কটাক্ষ ডিএমকে আধিকারিকের!

জোর করে হিন্দি এবং সংস্কৃত চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে, নতুন শিক্ষা নীতি নিয়ে কটাক্ষ ডিএমকে আধিকারিকের!
জোর করে হিন্দি এবং সংস্কৃত চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে, নতুন শিক্ষা নীতি নিয়ে কটাক্ষ ডিএমকে আধিকারিকের!

বংনিউজ২৪X৭ ডেস্কঃ এম কে স্ট্যালিনের নেতৃত্বে চলা ডিএমকে রাজনৈতিক দল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এনডিএ সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন। নতুন শিক্ষা নীতির বিরুদ্ধে কটাক্ষ, জোর করে হিন্দি এবং সংস্কৃত রাজ্যগুলির উপর চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সমস্ত রাজ্যের মু্খ্যমন্ত্রী এবং রাজনৈতিক দলগুলিকে এর বিরোধিতা করার জন্য ডিএমকের তরফে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে।

রাজনৈতিক দলের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে একটি চিঠিতে জানানো হয়, অতীতে সরকারের নিয়ম নীতির বিরুদ্ধে কিভাবে লড়তে হয়েছিল। অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য সর্বভারতীয় মেডিক্যাল সংরক্ষনের বিরুদ্ধে মাদ্রাস উচ্চ আদালতে লড়তে হয়েছিল। এই একই লড়াই আবার লড়তে হবে। শিক্ষা ব্যবস্থার উপর কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ মেনে নেওয়া হবে না। পুরোনা কথা মনে করিয়ে দিয়ে ডিএমকে আধিকারিক একটি বড়সড় রাজনৈতিক চাপান উতরের ইঙ্গিত দিচ্ছেন।

স্ট্যালিনের প্রশ্ন যেখানে ১০+২ এত সফল ভাবে শিক্ষা ব্যবস্থায় জায়গা করে নিয়েছিল, সেখানে ৫+৩+৩+৪ এবং বৃত্তিমুলক শিক্ষা চাপিয়ে দিয়ে বাচ্চাদের উপর মানসিক চাপ বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। সংবিধানের ক্ষমতা ব্যবহার করে একনায়কতন্ত্রের শাসন প্রতিষ্ঠা করার ব্যবস্থা করছে সরকার।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে রাজ্যগুলির উপর কেন্দ্র অধিকার গ্রহন করতে চাইছে। পাঠক্রম থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত সব ক্ষেত্রে কেন্দ্র নিজস্ব নিয়ম জারি করে রাজ্যগুলির উপর শাসন করতে চাইছে। হিন্দী এবং সংস্কৃতকে জোর করে চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে, আঞ্চলিক ভাষার বদলে। এই নিয়ম মেনে নেওয়া যায় না।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.