করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নির্বাচন কমিশনের কড়া নির্দেশিকা! কী করতে হবে বুথে ঢুকতে গেলে?

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নির্বাচন কমিশনের কড়া নির্দেশিকা! কী করতে হবে বুথে ঢুকতে গেলে?
করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নির্বাচন কমিশনের কড়া নির্দেশিকা! কী করতে হবে বুথে ঢুকতে গেলে? / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ সামনেই বিধানসভা ভোট। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে ফের করোনা সংক্রমণ নিয়ে আশঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিনই দেশে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে করোনা সংক্রমণের। কোনও কোনও মহল থেকে আবার করোনার দ্বিতীয় ঢেউ- এর আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে এবার বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনে করোনা সংক্রমণ রুখতে, কড়া নির্দেশিকা জারি করল নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, কোভিড বিধি না মানলে, নির্বাচনী বুথে ঢুকতে দেওয়া হবে না। বুথে ঢুকতে গেলে, আবিশ্যকভাবে পড়তে হবে মাস্ক এবং ডান হাতে থাকতে হবে গ্লাভস। এই নিয়ম ব্যতীত কেউ যাতে ভোট দিতে না পারে, তা নিশ্চিত করার জন্য বুথকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

কমিশন সূত্রে খবর, প্রতিটি বুথের বাইরে রাখা থাকবে স্যানেটাইজার। আর ডান হাতের জন্য গ্লাভসের ব্যবস্থা করবে খোদ নির্বাচন কমিশন। তবে, ভোট যাঁরা দেবেন তাঁদের বাঁ-হাত খালিই থাকবে। ওই হাতেই কালি দেওয়া হবে। ভোট দেওয়া শেষ হলে, নির্বাচন কমিশন থেকে দেওয়া গ্লাভস নির্দিষ্ট একটি জায়গায় ফেলতে হবে।

এরপর ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হলে, সেই গ্লাভসগুলি নষ্ট করে ফেলা হবে কমিশনের পক্ষ থেকে। উল্লেখ্য, বিহার বিধানসভা নির্বাচনেও এই ধরনের কড়া করোনাবিধি জারি করা হয়েছিল নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে। এর পাশাপাশি যাঁদের দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক বেশি হবে, তাঁরা সবার সঙ্গে ভোট দিতে পারবেন না। বিকেল ৫টা থেকে ৬.৩০, এই সময়ের মধ্যে তাঁরা ভোট দিতে পারবেন। আবার করোনা আক্রান্তদের জন্যও আলাদা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত ভোটদাতারা পোস্টাল ব্যালেটে ভোট দিতে পারবেন। তবে, এর জন্য তাঁদের আগাম আবেদন করতে হবে। অন্যদিকে, শারীরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তিরাও পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোট দিতে পারবেন। কমিশনের কর্মীরা তাদের কাছ থেকে ব্যালট সংগ্রহ করে নেবেন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.