“ওনার বাংলা শেখার প্রয়োজন নেই”, অমিতকে কটাক্ষ দিলীপের

Image source: Google

<strong>বিশেষ প্রতিবেদনঃ</strong> ভাষার সমস্যা নাকি তার বহু কাজের ক্ষেত্রে অন্তরায় হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এমনটাই মনে করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তাই এবার তিনি বাংলা ভাষায় নিজের দখল বাড়াতে এই ভাষা নিয়ে চর্চা শুরু করেছেন। বিজেপি সুত্রে জানা গয়েছে, তাঁর দল ঠিকমতো কাজ করছে কিনা সেবিষয়টি যাতে তিনি সঠিকভাবে বুঝতে পারেন তাই বাংলা ভাষা শিখছেন তিনি। যদিও অমিত শাহের এই বাংলা শেখার বিষয়টিকে একেবারেই বেদরকারি বলে দাবি করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর যুক্তি, বাংলার মানুষ ভালোই হিন্দি বোঝেন। সুতরাং তাঁর বাংলা শেখার কোন দরকারই নেই।

তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনেক ক্ষেত্রেই উপলব্ধি করেছেন যে, ভাষাগত সমস্যার জন্য বাংলা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত বিজেপির খবর থেকে শুরু করে বিজেপি রাজ্য কমিটির বেশ কিছু কাজ তাঁর কাছে পরিষ্কার হচ্ছেনা। এই সমস্ত কিছুই তাঁর বোঝার উপযোগী করে তোলার জন্য অনুবাদ করে দিতে হত। কিন্তু ভবিষ্যতে এইসমস্ত কাজগুলি বোঝার ক্ষেত্রে যাতে তাঁকে অন্য কারোর ওপর নির্ভর করতে না হয় তাই বাংলা ভাষা শেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তবে অমিত শাহের এই বাংলা ভাষা শেখার কথা প্রকাশ পেতেই এদিন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ খানিকটা কটাক্ষ করেই বলেন, “ওনার নামটাইও তো অমিত। আর অমিত তো বাংলা নাম। শুনলাম উনি নাকি বাংলা শিখছেন! তবে ওনার বাংলা শেখার প্রোয়োজন নেই। বাংলার মানুষ ভালো হিন্দি বলেন। তবে এখান থেকে যারা বাঙালি এমপি গিয়েছেন, তাঁদেরই একটু হিন্দি শেখার দরকার আছে।“

প্রসঙ্গত, বাংলা ভাষাজ্ঞান নিয়ে বিজেপি সরকারকে বহুবার কটাক্ষ করেছে তৃণমূল। এমনকি ভষাগত কারনেই তাঁদের ‘বহিরাগত’ বলেও আক্রমন করতে ছাড়েনি মমতা সরকার। এমনকি অভিষেক বন্দোপাধ্যায় বিজেপিকে ভালো করে বাংলা শিখে তারপরেই বাংলার নিজেদের আধিপত্য গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখার কথা বলেছেন। আর এই সমস্ত দিক বিচার করেন অমিত শাহ বাংলা ভাষা শেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বলেই মনে করছেন সকলে।

আরও পড়ুনঃ  ‘প্রতিরোধের নয় এবার প্রতিশোধের রাজনীতি হবে’: দিলীপ ঘোষ

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.