বিফলে আলোচনা, কৃষকদের সঙ্গে কৃষিমন্ত্রীর বৈঠকের পরেও পাওয়া গেল না কোনো সমাধান

বিফলে আলোচনা, কৃষকদের সঙ্গে কৃষিমন্ত্রীর বৈঠকের পরেও পাওয়া গেল না কোনো সমাধান
বিফলে আলোচনা, কৃষকদের সঙ্গে কৃষিমন্ত্রীর বৈঠকের পরেও পাওয়া গেল না কোনো সমাধান

মঙ্গলবার বিজ্ঞানভবনে কৃষকদের সঙ্গে বৈঠক করেন কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর। কিন্তু এই বৈঠকেও কোন সমাধান সূত্র পাওয়া যায়নি। কৃষি আইন বাতিল নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয় এবং কৃষকরা নিজেদের দাবি স্পষ্ট করে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী সামনে রাখে। এমনকি কেন্দ্রীয় কমিটি গড়ে আলোচনার সময় এখন নেই এমনটাই জানানো হয় কৃষকদের পক্ষ থেকে। কিন্তু তা সত্ত্বেও কোনো রকম কোনো সমাধান সূত্র এই বৈঠক থেকে বার হয়নি বলে জানা গেছে। আগামী ৩ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার আবারো বৈঠকে বসতে চলেছে কৃষকদের প্রতিনিধি এবং সরকারের প্রতিনিধি।

সোমবার কৃষিমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, গত ১৩ নভেম্বর আমাদের কৃষকদের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা ছিল এবং ৩ ডিসেম্বর আমরা আলোচনার দিন স্থির হয়। কিন্তু কৃষকরা এখন প্রতিবাদের মেজাজে। তাই দিন দুয়েক আগেই বৈঠকের আহ্বান জানানো হয়। কৃষকরা যাতে প্রতিবাদের পথ থেকে সরে এসে আলোচনা এবং কথাবার্তার মধ্য দিয়ে সমস্যার সমাধান করেন সেই জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন কৃষিমন্ত্রী।

তাৎপর্যপূর্ণভাবে সোমবার কৃষি মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এরপর রবিবার কেন্দ্রের সামনে রাখা শর্তসাপেক্ষে আলোচনায় প্রস্তাবও ফিরিয়ে দেয় কৃষকরা। তারপর এক প্রকার বাধ্য হয়েই কৃষকদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি হন কৃষিমন্ত্রী।

নতুন কৃষি আইন পাশ হওয়ার পর থেকেই দেশের বিভিন্ন জায়গায় কৃষকেরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। এবার এই আইন প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনের পথে নেমেছে কৃষক সংগঠনগুলি। দিল্লির পাঁচদিনব্যাপী আন্দোলন চালাচ্ছে কৃষকেরা। কিন্তু তাদের দাবি মানতে নারাজ মোদি সরকার।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.