অস্কারজয়ী ডিজাইনার নিজের বাড়িকে কালো রঙে ভরিয়ে তুললেন! কেন? জেনে নিন, এর কারণ

অস্কারজয়ী ডিজাইনার নিজের বাড়িকে কালো রঙে ভরিয়ে তুললেন! কেন? জেনে নিন, এর কারণ
অস্কারজয়ী ডিজাইনার নিজের বাড়িকে কালো রঙে ভরিয়ে তুললেন! কেন? জেনে নিন, এর কারণ

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ দেখলে অবাক না হয়ে উপায় নেই! সারা বাড়ি যেন ঘন কালো চাদরে কেউ মুড়ে দিয়েছে। এক গভীর অন্ধকারময়তা যেন গ্রাস করেছে গোটা বাড়িটিকে। আসলে অ্যাকাডেমি পুরস্কারবিজয়ী প্রোডাকশন ডিজাইনার হান্না বিচলার এভাবেই তাঁর বাড়িটিকে রঙ করেছেন।

চলতি বছরের অন্ধকারময়তাকে তিনি নিজের বাড়ির রঙে ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছেন। যা দেখলে অবাক হতেই হয়। এই বছর ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার-এর আন্দোলনে এক বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ অংশ নিয়েছে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র। তাছাড়া করোনাভাইরাস মহামারী একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ। এর জেরে বিশ্ব জুড়ে সমগ্র মানবজাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

আর তাই এই বছরটিকে স্মরণীয় করে রাখতেই, অ্যাকাডেমি পুরস্কারবিজয়ী প্রোডাকশন ডিজাইনার হান্না বিচলার তাঁর বাড়ির দেওয়াল, বাড়ির বাইরের অংশ, ছাদ এবং জানলার ফ্রেম থেকে শুরু করে সমগ্র বাড়িটিকে কালো রঙ দিয়ে ভরিয়ে দিয়েছেন।

নতুনভাবে বাড়িকে সাজানোর পরে নিউ অরলিয়ান্সের বাসিন্দা হান্না বিচলার তাঁর বাড়ির ছবি ট্যুইটারে পোস্টও করেছেন। নেটিজেনদের কাছে তাঁর ভাবনা প্রশংসিত হয়েছে। তাঁর সৃজনশীলতায় মুগ্ধ হয়েছেন নেটিজেনরা। গত ২৭ নভেম্বর তিনি ছবিগুলি পোস্ট করেছিলেন। আনন্দের সঙ্গে তিনি জানিয়েছিলেন যে, তিনি বাড়িটিকে কালো রঙে সাজিয়েছেন। তাঁর পোস্টটিতে তিনি তিনটি ছবি দিয়েছিলেন। শুধু বাইরের নয়, বাড়ির ভেতরের ছবিও তিনি দিয়েছিলেন।

ছবিতে চোখ রাখলেই দেখা যাবে, কীভাবে ছাদ, জানালার ফ্রেম এমনকি দরজার শাটারগুলি থেকে সমস্ত কিছু কালো রঙ করা হয়েছে। যদিও বাড়িতে ঢোকার মূল দরজাটির রঙ সাদা রাখা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে হান্না জানিয়েছেন যে, কালো রঙের গুরুত্ব আরও গভীরভাবে ফুটিয়ে তুলতে, তিনি সদর দরজার রঙ সাদা রেখেছেন।

উল্লেখ্য, এই কাজে হান্না একা নন, পেশাদার চিত্রশিল্পীদের দিয়ে দুই মাস ধরে এই বাড়ি রঙ করার কাজ হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন যে, এই হাই গ্লস পেন্ট প্রকৃতির আর্দ্রতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে তৈরি করা, ফলে এই রঙ সহজে উঠে যাবে না বা বিবর্ণ হয়ে আসবে না সময়ের সঙ্গে৷ প্রতিবেশীরা তাঁকে এই বিষয়ে সমর্থন করেছেন বলেও খুশি হান্না বিচলার।

এদিকে তাঁর বাড়ির ছবি পোস্ট হতেই, ফলোয়াররাও লাইকে ভরিয়ে দিয়েছেন তাঁর বাড়ির ছবিটিকে৷ প্রায় ১৬ লক্ষের বেশি লাইক পড়েছে এই পোস্টটিতে৷

প্রশংসাসূচক মন্তব্যে ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরা। কেউ কেউ সরাসরি বাড়িটিকে ভালোবেসে ফেলেছেন বলে কমেন্ট করেছেন। কেউ বা আবার জানিয়েছেন যে মিউজিয়ামে রাখার মতো শিল্পকলার নিদর্শনে পরিণত হয়েছে বিচলারের বাড়ি! কেউ কেউ তো সেখানে থাকারও আর্জি জানিয়েছেন।

অনেকের মতে, এটি বিশুদ্ধ শিল্পের নিদর্শন যা সম্ভবপর হয়ে উঠেছে বাড়ির মালিকের অসামান্য শিল্পবোধ ও প্রতিভার যুগলবন্দিতে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.