৫০০-র বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত এই শহরের দুই হাসপাতালে! বেহাল স্বাস্থ্য পরিষেবা

৫০০-র বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত এই শহরের দুই হাসপাতালে! বেহাল স্বাস্থ্য পরিষেবা
৫০০-র বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত এই শহরের দুই হাসপাতালে! বেহাল স্বাস্থ্য পরিষেবা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশব্যাপী ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে মারণ করোনা। দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। প্রতিদিন রেকর্ড সংখ্যক মানুষ সংক্রমিত হচ্ছেন এই ভাইরাসে। ক্রমশ বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। চারিত্রিক বৈশিষ্টের পরিবর্তন করে, আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে মারণ করোনা। করোনার এই দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল দেশবাসী। ক্রমশ এই ঢেউ নিজের শক্তি বাড়িয়েই চলেছে।

হাসপাতালে করোনা রোগীর উপছে পড়া ভিড়। শশ্মানেও করোনায় মৃত মানুষের দেহের ভিড়। প্রতিদিন এত বেশি সংখ্যায় মানুষ সংক্রমিত হচ্ছে যে, হাসপাতালে বেডের আকাল দেখা দিয়েছে। পাশাপাশি দেশজুড়ে অক্সিজেনের সংকটও দেখা দিয়েছে। হাসপাতালগুলিতে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের পরিস্থিতি সামাল দিতে নাভিশ্বাস উঠছে। তাঁরাও আক্রান্ত হচ্ছেন। স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার মুখে। চাপ সৃষ্টি হচ্ছে চিকিৎসা পরিষেবায়। ভয়াবহ পরিস্থিতি পাটনাতেও।

এই পরিস্থিতিতে পাটনার দুই উন্নতমানের হাসপাতাল মিলিয়ে প্রায় ৫০০-র বেশি স্বাস্থ্যকর্মী এবার করোনায় আক্রান্ত হলেন। যা পরিস্থিতি সেখানে আরও জটিল করে তুলেছে। পাটনার এইমস এবং পাটনা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের প্রায় ৫০০ জনের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর সামনে এসেছে। তাঁদের করোনা টেস্ট পজিটিভ এসেছে। এই দু’টিই পাটনার সব থেকে বড় হাসপাতাল। পাটনা এইমসের মেডিক্যাল সুপারিনটেনডেন্ট সিএম সিং-কে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, হাসপাতালের ৩৮৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে চিকিৎসক, নার্স, সাফাই কর্মীও রয়েছেন।

অন্যদিকে, পাটনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট ইন্দু শেখর ঠাকুর জানিয়েছেন, তাঁদের হাসপাতালে ১২৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তার মধ্যে চিকিৎসক রয়েছেন ৭০ জন। বাকি ৫৫ জন নার্স এবং অন্য কর্মী রয়েছেন। আক্রান্তদের বেশিরভাগই হোম আইসোলেশনে রয়েছেন বর্তমানে।

উল্লেখ্য, পাটনার এই দুই হাসপাতালে উন্নতমানের করোনা চিকিৎসা পরিষেবা মেলে। আর এখানেই সবথেকে বেশি করোনা রোগীর চিকিৎসা চলছে। এই অবস্থায় এই দুই হাসপাতাল মিলিয়ে, এতজন ৫০০-র বেশি চিকিৎসক কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পরিষেবা দিতে যে সমস্যা হবে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহই নেই।