টিভি দেখেই নাচ শেখা! সুপার ডান্সারের সেরা ১৩-তে বাজিমাত বাংলার ছোট্ট পরীর

টিভি দেখেই নাচ শেখা! সুপার ডান্সারের সেরা ১৩-তে বাজিমাত বাংলার ছোট্ট পরীর
টিভি দেখেই নাচ শেখা! সুপার ডান্সারের সেরা ১৩-তে বাজিমাত বাংলার ছোট্ট পরীর

ভাগ্য আর চেষ্টা আর এই দুটি মিলিয়েই পাওয়া যায় ফল। নিজের অদম্য চেষ্টার এমনই এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো জলপাইগুড়ির পরী তামাং। তার নাচের জাদু এখন গোটা দেশে। সুপার ডান্সার চাপ্টার ফোরের অন্যতম সেরা প্রতিযোগী পরী তামাং। না কোথাও সে নাচ শেখেনি, কোনও নামি দামী ইনস্টিটিউট নয় বা কোনও গুরু নেই। নিজের চেষ্টায় বাড়িতে টিভি দেখেই নাচ শিখেছে এই খুদে।

টিভি দেখেই নাচ শেখা! সুপার ডান্সারের সেরা ১৩-তে বাজিমাত বাংলার ছোট্ট পরীর
টিভি দেখেই নাচ শেখা! সুপার ডান্সারের সেরা ১৩-তে বাজিমাত বাংলার ছোট্ট পরীর

আর আজ সেই খুদের নাচে মুগ্ধ গোটা দেশ। প্রায় ৫ হাজার প্রতিযোগীদের মধ্যে ১৩ নম্বর স্থানে নিজের জায়গা করতে পেরেছে পরী। প্রতিদিনই তার নাচে থাকে আলাদাই স্বাদ। তার নাচ দেখে মুগ্ধ এই রিয়েলিটি শো এর অনুরাগ বাসু, গীতা এবং শিল্পা। খুবই ছোট শহর থেকে হাজারো স্বপ্ন নিয়ে এই জগতে পা রেখেছে ছোট্ট পরী। আর গুটি গুটি পায়ে সেই স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে এগোচ্ছে এই খুদে। তার এই যাত্রায় সব সময় পাশে থাকছেন তার মা। বাবা কর্মসূত্রে থাকেন মুম্বইয়ে।

পরীর এই উজ্জ্বল যাত্রা দেখে খুশি গোটা জলপাইগুড়ি। আসলে আগের বছর করোনা আবহে বন্ধ ছিল সমস্ত স্কুল। আর সেই সময়টিকে কাজে লাগিয়েছে পরী। টিভি দেখে নাচকে এনেছে নিজের আয়ত্তে। অল্প দিনের মধ্যেই জিতে নিয়েছে সকলের মন। সেরা ১৩ এর মধ্যে নিজের স্থায়ী জায়গা করে নিয়েছে পরী।