রাতের অন্ধকারে মুরগির লোভ দেখিয়ে সিংহিকে নিয়ে চলত বর্বরোচিত খেলা! অবশেষে শাস্তি পেল অপরাধীরা

রাতের অন্ধকারে মুরগির লোভ দেখিয়ে সিংহিকে নিয়ে চলত বর্বরোচিত খেলা! অবশেষে শাস্তি পেল অপরাধীরা / Image Source- Screengrab from Youtube Video Post By @DeshGujaratHD
রাতের অন্ধকারে মুরগির লোভ দেখিয়ে সিংহিকে নিয়ে চলত বর্বরোচিত খেলা! অবশেষে শাস্তি পেল অপরাধীরা / Image Source- Screengrab from Youtube Video Post By @DeshGujaratHD

রাতের অন্ধকারে পর্যটকদের সামনে বেআইনি ভাবে দেখানো হত সিংহির খেলা। অবশেষে মিলল শাস্তিও। অপরাধীদের তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করল আদালত। পাশাপাশি খেলা দেখানোর জমিটিও খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গুজরাটের গিরের বাবারিয়া রেঞ্জে বেআইনিভাবে দেখানো হত এই খেলা। তার জন্য পর্যটকদের থেকে আদায় করা হতো মোটা অঙ্কের টিকিটের খরচও।

আজ, মঙ্গলবার অপরাধীদের সাজা ঘোষণা করল গীরগদড়া আদালত। ঘটনাটির কথা প্রকাশ্যে আসে ২০১৮ সালের একটি ভিডিওর মাধ্যমে। ‘১৮ সালের ২৫ অক্টোবর যেটি প্রকাশ করে ‘DeshGujratHD’ নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল। সেখানে দেখা গিয়েছিল, মুরগিকে টোপ হিসাবে ব্যবহার করে, লোভ দেখিয়ে, সিংহিকে নিয়ে চলছে ঘৃণ্য খেলা। যা দেখে বেশ মজা পাচ্ছেন পর্যটকরা। বন্যকর্মীদের মতে, এই কাজ খুবই বর্বরোচিত এবং ভয়ঙ্কর। এতে সিংহির জীবনের গতিপথ যেমন ব্যহত হচ্ছে, পাশাপাশি কোনও ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

দেখুন সেই ভিডিও-

পুরোনো সেই ভিডিওটি ভাইরাল হতেই ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে গুজরাট সরকার। বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন ১৯৭২ -অনুযায়ী একাধিক ধারায় দায়ের করা হয় মামলা। জানা গিয়েছে, এর সঙ্গে যুক্ত ছিল মোট তিনটি পর্যটন সংস্থা। এছাড়াও, খেলা দেখানোর সময় ইলিয়াসেন ধ্রুবক নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল৷ পাশাপাশি বাকি অভিযুক্তরাও গ্রেপ্তার হয়। ইলিয়াসেনই মুরগি হাতে পর্যটকদের সামনে সিংহির খেলা দেখাতেন। এমনকি খেলা দেখানোর জন্য নিজের জমিও ছেড়ে দিয়েছিলেন তিনি।

এরপর ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই হাতে নাতে শাস্তি পেলেন তাঁরা। আদালতের এই ঐতিহাসিক রায়ে সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা করে জরিমানাও ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়াও ইলিয়াসেনের জমির পারমিটও রদ করে দিয়েছে সরকার। সেটি এবার থেকে সরকারি জমি হিসাবেই ব্যবহৃত হবে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.