বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

জানেন শঙ্খ ঘোষের আসল নাম কী? প্রথম প্রয়াণবার্ষিকীতে স্মরণে কবি

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: এপ্রিল ২১, ২০২২, ০২:২২ পিএম | আপডেট: এপ্রিল ২১, ২০২২, ০২:২২ পিএম

জানেন শঙ্খ ঘোষের আসল নাম কী? প্রথম প্রয়াণবার্ষিকীতে স্মরণে কবি
জানেন শঙ্খ ঘোষের আসল নাম কী? প্রথম প্রয়াণবার্ষিকীতে স্মরণে কবি

বাংলা সাহিত্যের আলোচনা শুরু হলে যেসব কবিদের নাম না করলেই নয়, তাঁদের মধ্যে অন্যতম কবি শঙ্খ ঘোষ। তিনি ছিলেন একজন বাঙালি কবি ও সাহিত্য সমালোচক। একই সঙ্গে বিশিষ্ট রবীন্দ্র বিশেষজ্ঞও। বাংলা সাহিত্যের দরবারে তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। তাঁর লেখা বার বার ভাবাতে বাধ্য করে পাঠককে। এই অসামান্য সাহিত্য ব্যক্তিত্বই আজ থেকে ঠিক একবছর আগে পাড়ি দেন পরলোকে।

কবি শঙ্খ ঘোষের জন্ম ১৯৩২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি, বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলায়। তাঁর প্রকৃত নাম চিত্তপ্রিয় ঘোষ। পৈতৃক বাড়ি বাংলাদেশের বরিশাল জেলার বানারিপাড়া গ্রামে হলেও শঙ্খ ঘোষ বড় হন পাবনায়। সেখানেই চন্দ্রপ্রভা বিদ্যাপীঠ থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পাস করে ১৯৫১ সালে প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে বাংলায় স্নাতক হন। এরপর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন তিনি।

নিজের জীবনে দীর্ঘ একটা সময় শিক্ষকতা করেই কাটিয়েছিলেন শঙ্খ ঘোষ। বঙ্গবাসী কলেজ, সিটি কলেজ, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়, শিমলার ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অফ আডভান্স স্টাডিজ, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন তিনি। ১৯৬০ সালে মার্কিন যুক্তরাস্ট্রের আইওয়া রাইটার্স ওয়ার্কশপেও অংশগ্রহণ করেছিলেন। ১৯৯২ সালে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই অবসর গ্রহণ করেন।

শিক্ষকতার পাশাপাশিই চলেছে তাঁর সাহিত্য সৃষ্টি। বিভিন্ন সমসাময়িক সাহিত্যের মাধ্যমে, বাংলা সাহিত্য জগতে  শঙ্খ ঘোষ রেখেছিলেন নিজস্ব এক ছাপ। মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে, ধুম লেগেছে হৃদকমলে, মূর্খ বড়, সামাজিক নয়, আমির আবরণ, উর্বশীর হাসি, ওকাম্পোর রবীন্দ্রনাথ ইত্যাদি গ্রন্থের মাধ্যমে পাঠকদের ভরিয়ে তুলেছিলেন তিনি। ‍‍`বাবরের প্রার্থনা‍‍` কাব্যগ্রন্থটির জন্য ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাহিত্য পুরস্কার ‍‍`সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার‍‍`ও লাভ করেন এই প্রথিতযশা কবি। জ্ঞানপীঠ, রবীন্দ্র পুরস্কার বা পদ্মভূষণের মতো সম্মানেও ভূষিত হয়েছেন। পাঠকদের কাছে কবি শঙ্খ ঘোষ নামেই বেশি পরিচিত হলেও, বিভিন্ন সময়ে তাঁকে ‍‍`কুন্তক‍‍` বা ‍‍`শুভময়‍‍` ছদ্মনামও ব্যবহার করতে দেখা গিয়েছিল।

সাহিত্য সৃষ্টির পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক এবং রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডেও প্রত্যক্ষভাবে নিজের মতামত রাখতে দ্বিধাবোধ করেননি শঙ্খ ঘোষ। সামাজিক বা রাজনৈতিক অন্যায়ের বিরুদ্ধে বারংবার গলা চড়িয়েছেন তিনি। সমাজের শোষিত ও নিপীড়িত মানুষের দুঃখ যন্ত্রণা দেখে গর্জে উঠেছে তাঁর লেখনী। লেখায় ফুটিয়ে তুলেছেন প্রতিবাদের ভাষা। কিন্তু এই অসামান্য ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন কবির কলম থেমে যায় গতবছর, ঠিক আজকের দিনেই। কোভিডে আক্রান্ত হয়ে ২১ এপ্রিল এই পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে পরলোক যাত্রা করেন কবি।