পিএইচডি ভাইভা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত যাদবপুরের

পিএইচডি ভাইভা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত যাদবপুরের
পিএইচডি ভাইভা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত যাদবপুরের

কলকাতা: পিএইচডি, এমফিলের ফাইনাল ভাইভা ও ইন্টারভিউ অনলাইন করার সিদ্ধান্ত নিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। তবে যাদবপুর বাদে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে হল না এই সমস্যার সমাধান।

এমফিল, পিএইচডি-র চূড়ান্ত বর্ষের জন্য ছ’মাস করে মেয়াদ বাড়ানোর কথা বলেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন বা ইউজিসি। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়-সহ অনেক প্রতিষ্ঠানই এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনও বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেনি। মেয়াদ বাড়ানো হলে স্কলারশিপ দেওয়া হবে কি না, সে বিষয়েও তৈরি হয়েছে উদ্বেগ।

যাদবপুরের এমফিল-পিএইচডি চূড়ান্ত বর্ষের গবেষক, পড়ুয়াদের জন্য অনলাইন ভাইভার দাবি জানিয়েছিল শিক্ষক সংগঠন জুটা। সংগঠনের তরফে পার্থপ্রতিম রায় জানান, এই সময়ে বহু গবেষকের সমস্যা হচ্ছিল। এই পরিস্থিতিতেই অনলাইনের দাবি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্য চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য জানান, তাঁরা ফাইনাল ডিজারটেশন, প্রি সাবমিশন ডিজারটেশন, ভাইভা, ইন্টারভিউ সবটাই অনলাইন করবেন।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে অবশ্য এখনও কোনও প্রক্রিয়া শুরু হয়নি। অনলাইন, নাকি খাতায়-কলমে পরীক্ষকরা মূল্যায়ন করতে পারেন, সে ব্যাপারেও কোনও উদ্যোগ চোখে পড়েনি।কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সংগঠন কুটা-র সভাপতি পার্থিব বসু জানিয়েছেন, আগামী বুধবার রেজিস্ট্রার একটি বৈঠক ডেকেছেন। সেখানে এ নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা।

গবেষক সংগঠন ডিআরএসও-র আহ্বায়ক রাজীব সিকদার জানান, রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও ৩৯টি গবেষণা প্রতিষ্ঠানে কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। অযথা সময় নষ্ট হচ্ছে। স্কলারশিপের মেয়াদ না বাড়লে হয়তো বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করতে বাধ্য হবেন গবেষকরা।

আরও পড়ুনঃ  মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারিতে বাস মালিকদের সুর নরম, স্বস্তি নিত্য যাত্রীদের

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.