করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকের পর মোদীর দফতর থেকে নেওয়া হল বড় সিদ্ধান্ত! রইল বিস্তারিত

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকের পর মোদীর দফতর থেকে নেওয়া হল বড় সিদ্ধান্ত! রইল বিস্তারিত
করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকের পর মোদীর দফতর থেকে নেওয়া হল বড় সিদ্ধান্ত! রইল বিস্তারিত / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশব্যাপী এই মুহূর্তে ফের করোনা সংক্রমণের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। দেশের মধ্যে বেশ কয়েকটি রাজ্যে প্রতিদিন বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ। দেশের এইসব রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে বড় সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার।

জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, যেসব রাজ্যে মারণ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সবথেকে বেশি, সেখানে আগামী ৬ এপ্রিল থেকে শুরু হবে বিশেষ ক্যাম্পেন। এদিকে সপ্তাহের শেষে মহারাষ্ট্রের শিবসেনা সরকার লকডাউন ঘোষণা করেছে।

রবিবার অর্থাৎ আজ দিল্লিতে ক্যাবিনেট সচিব, প্রিন্সিপাল সেক্রেটরি, স্বাস্থ্যসচিব-সহ বেশ কয়েকজন আধিকারিককে নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর সম্মুখে দেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়। এর পাশাপাশি দেওয়া হয় করোনা টিকাকরণ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য। এরপরেই এই সিদ্ধান্ত সেওয়া হয় যে, দেশের সাধারণ মানুষকে সচেতন এবং সতর্ক করতে আগামী ৬ এপ্রিল থেকে বিশেষ ক্যাম্পেন শুরু করা হবে। আর এই ক্যাম্পেন চলবে চলতি মাসের ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত।

অন্যদিকে, যেসব রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার অত্যন্ত বেশি, সেখানকার মানুষকে সচেতন করা হবে। মাস্ক, স্যানিটাইজারের ব্যবহার, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা, কর্মক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন থাকার মতো বিষয়গুলি নিয়ে সতর্ক করা হবে কেন্দ্রের এই বিশেষ ক্যাম্পেনে। এদিকে মহারাষ্ট্র, পাঞ্জাব এবং ছত্তিশগড়ে করোনায় কত মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন, তার সঠিক তথ্য জানতে কেন্দ্রের তরফে একটি বিশেষ দল পাঠানো হচ্ছে সেখানে।

এছাড়াও এদিনের বৈঠকে কনটেনমেন্ট জোনের উপর বিশেষ নজর দিতে বলেন প্রধানমন্ত্রী। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে সাধারণ মানুষকে ফের একবার সচেতন করার লক্ষ্যে স্থানীয় ভলান্টিয়ারদের কাজে নামারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সূত্রের খবর, এদিনের বৈঠকে সংক্রমণ রুখতে মোদির মুখে শোনা যায় ‘ফাইভ-ফোল্ড স্ট্র্যাটেজি’র কথাও। এর পাশাপাশি টেস্টিং, ট্রেসিং, চিকিৎসা, কোভিড প্রোটোকল পালন এবং টিকাকরণ। এই প্রত্যেকটি বিষয় সঠিক এবং কঠোরভাবে মেনে চলার কথা বলা হয়েছে।

এদিকে, মহারাষ্ট্রে ঝড়ের গতিতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। আর এই জন্যই ফের একবার নতুন করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে উদ্ধব ঠাকরের সরকার। জানানো হয়েছে, শুক্রবার রাত ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত জারি থাকবে লকডাউন। পাশাপাশি সোমবার থেকে গোটা রাজ্যে রাত ৮টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত নাইট কারফিউর কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। যদিও এই সময় অত্যাবশকীয় পরিষেবা মিলবে। বলা হয়েছে, আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত এই নিয়ম চালু থাকবে। এছাড়া করোনা এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে বড় কোনও শুটিংয়েরও অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না সরকারের পক্ষ থেকে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.