লক্ষ্য কি ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন? রাহুল গান্ধীর বাড়িতে গিয়ে বৈঠক প্রশান্ত কিশোরের! তুঙ্গে জল্পনা

লক্ষ্য কি ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন? রাহুল গান্ধীর বাড়িতে গিয়ে বৈঠক প্রশান্ত কিশোরের! তুঙ্গে জল্পনা
লক্ষ্য কি ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন? রাহুল গান্ধীর বাড়িতে গিয়ে বৈঠক প্রশান্ত কিশোরের! তুঙ্গে জল্পনা

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এখন থেকেই ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিটি রাজনৈতিক দল রণকৌশল ঠিক করতে ময়দানে নেমে পড়েছে। এদিকে বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর তৃণমূল কংগ্রেসের এই সাফল্যের পিছনে বড় ভূমিকা রয়েছে প্রশান্ত কিশোর এবং তাঁর সংস্থা আইপ্যাকের। তাঁর সংস্থা আইপ্যাকের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা চর্চিত হয়েছে রাজনৈতিক মহলেও। এরপর বাংলার ভোটের ফলাফলের কয়েক মাস কাটতে না কাটতেই, শরদ পাওয়ারের সঙ্গে কথা বলতে দেখা গিয়েছিল প্রশান্ত কিশোরকে। আর এবার জল্পনা বাড়িয়ে মুখোমুখি হলেন প্রশান্ত কিশোর এবং রাহুল গান্ধী। মঙ্গলবার দুপুরে একপ্রকার আচমকাই প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতির বাড়িতে হাজির হন পিকে।

রাহুলের পাশাপাশি প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সঙ্গেও পিকের কথা হয়েছে। এছাড়াও কথা হয়েছে কংগ্রেসের সাংগঠনিক সাধারণ সম্পাদক কে সি বেণুগোপালের সঙ্গেও। সূত্রের এও খবর, শুধুমাত্র পিকের সঙ্গে দেখা করার জন্যই প্রিয়াঙ্কা গান্ধী নিজের পাঞ্জাব সফর দু’দিনের জন্য পিছিয়ে দিয়েছেন। লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে অ-বিজেপি দলগুলির একজোট হওয়ার সম্ভবনা ক্রমশ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে এদিনের এই বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তবে, এদিন মূলত পাঞ্জাবের ভোট এবং রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা হয়ে থাকতে পারে বলেই অনুমান রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

প্রশান্ত কিশোর এবং রাহুল গান্ধীর মধ্যে সাক্ষাৎ ঘিরে একাধিক সম্ভবনার কথা উঠে আসছে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা আসন্ন ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের লক্ষ্যেই এই সাক্ষাৎ। আবার অনেকেই মনে করছেন ২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের দায়িত্ব নিতে পারেন ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর। তাই এই সাক্ষাৎ।

তবে, সূত্রের খবর, এদিনের সাক্ষাতের মূল আলোচ্য বিষয় ছিল পাঞ্জাবের কংগ্রেসের অন্দরের পরিস্থিতি। এই মুহূর্তে কংগ্রেস শাসিত পাঞ্জাবে মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের হয়ে কাজ করছেন প্রশান্ত কিশোর। সে রাজ্যে আবার কংগ্রেস গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জর্জরিত। সিধু-অমরিন্দর সিং দ্বন্দ্ব সামাল দিতে এমনিতেই নাজেহাল অবস্থা কংগ্রেস হাই-কম্যান্ডের। এদিকে, আগামী বছরই ভোট রয়েছে পাঞ্জাবে। তার আগে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং ও কংগ্রেস বিধায়ক নভজ্যোত সিং সিধুর মধ্যে তৈরি হওয়া রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের সমাধান চায় কংগ্রেস। সেই জন্যই পিকের রাহুল-প্রিয়াঙ্কার দ্বারস্থ হওয়াটা পাঞ্জাব নিয়ে আলোচনার আসল কারণ বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে অমরিন্দর সিংকে জেতানোয় বড় অবদান ছিল পিকের। আবারও একটা ভোট আসন্ন। আর তার আগে ক্রমাগত নভজ্যোত সিং সিধু বিভিন্ন ইস্যুতে নিজের দলের মুখ্যমন্ত্রী্কে আক্রমণ করে চলেছেন। সেটাই এই মুহূর্তে কংগ্রেসের মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠেছে। আবার এদিনের বৈঠকে ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের রণকৌশল তৈরি করা নিয়েও আলোচনার সম্ভবনা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তার সবথেকে বড় কারণ, চব্বিশের লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি-বিরোধী মহাজোট তৈরিতে উদ্যোগী হয়েছে প্রতিটি বিরোধী শিবির। আর ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর নিজে সেই জোটের সেতুবন্ধনকারী হিসেবে কাজ করছেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই রাহুল এবং প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে এই সাক্ষাৎ সেই কারণেও হতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

তাছাড়া লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে হারাতে আঞ্চলিক দলগুলির একটি সমন্বয় তৈরি করতে চাইছেন অনেক অ-বিজেপি নেতা। সেই মহাজোটে কংগ্রেসকে সামিল করা হবে কিনা, তা নিয়ে রাজনৈতিক জল্পনা চলছে। তারই মধ্যে এই বৈঠক। কাজেই এই বৈঠকের তাৎপর্য অনেকটাই বেশি।